ঐতিহাসিক বিজয়ে জামায়াতের সকাল-সন্ধা হরতাল প্রত্যাহার

রাষ্ট্রধর্ম ইসলামের বিরুদ্ধে করা রিট হাইকোর্টের খারিজ করে দেয়াকে ১৬ কোটি মানুষেরই ‘ঐতিহাসিক বিজয়’ মন্তব্য করে সোমবার অবশিষ্ট সময়ের হরতাল প্রত্যাহার করেছে জামায়াতে ইসলামী। সোমবার জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল ডা. শফিকুর রহমান এক বিবৃতিতে হরতাল প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন।

 

ইসলামকে রাষ্ট্রধর্ম হিসেবে বহাল রাখার দাবিতে সোমবার সারাদেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালন করে আসছিল জামায়াতে ইসলামী। তবে এরই মধ্যে দুপুরে ইসলামকে রাষ্ট্রধর্ম করার বিরুদ্ধে দায়ের করা রিট খারিজ করে দেয় হাইকোর্টের তিন বিচারপতির এক বেঞ্চ। এরপর জামায়াতের পক্ষ থেকে হরতালের প্রত্যাহারের ঘোষণা আসে।

 

বিবৃতিতে ডা. শফিকুর রহমান বলেন, ‘সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম হিসাবে ইসলামকে বাদ দেয়ার যে ষড়যন্ত্র করা হয়েছিল তার প্রতিবাদে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আহুত আজ ২৮ মার্চের হরতাল চলাকালীন হাইকোর্ট শুনানি শেষে আবেদনকারীদের আবেদন খারিজ করে দেয়ায় বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর পক্ষ থেকে আজকের দিনের পরবর্তী সময়ের জন্য চলমান হরতাল প্রত্যাহার করার ঘোষণা প্রদান করছি।’

 

‘আজকের এই ঐতিহাসিক বিজয় নির্দিষ্ট কোনো দল, ব্যক্তি বা গোষ্ঠীর বিজয় নয়। এদেশের ১৬ কোটি মানুষেরই বিজয়,’ বলেন জামায়াত নেতা।

 

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘ষড়যন্ত্রকারীদের ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে আজকের হরতাল সফল করার জন্য সমগ্র দেশবাসীকে আমরা আন্তরিক মোবারকবাদ জানাচ্ছি এবং এই প্রতিবাদ কর্মসূচিতে বিভিন্ন ইসলামী দল, সংস্থা, সংগঠন, আইনজীবী ও বাংলাদেশের আপামর জনসাধারণ যে ঐতিহাসিক ভূমিকা পালন করেছেন আমরা বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর পক্ষ থেকে তাদেরকে আন্তরিক অভিনন্দন জ্ঞাপন করছি।’

 

‘ভবিষ্যতেও জনগণের স্বার্থ ও ইসলামী ঐতিহ্য সংরক্ষণ এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় দলমতের উর্ধ্বে উঠে ইস্পাত কঠিন ঐক্য গড়ে তুলে নাগরিক দায়িত্ব পালন করার জন্য আমরা আপামর দেশবাসীকে আহ্বান জানাচ্ছি।’

 

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘জামায়াতে ইসলামী ইমান ও ইসলাম রক্ষা এবং দেশ ও জাতির প্রয়োজনে অন্যায়ের কাছে মাথানত করবে না। দেশ এবং জাতির কাঁধে কাধ মিলিয়ে আপসহীন ও নিয়মতান্ত্রিক পন্থায় সর্বাত্মক সংগ্রাম চালিয়ে যাবে।’

 

‘সর্বোপরি জনগণের প্রাণের দাবি বাস্তবায়িত হওয়ায় আমরা মহান আল্লাহর তায়ালার একান্ত শুকরিয়া আদায় করছি।’

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।