জিয়া চ্যারিটেবল মামলায় খালেদার রিভিশন আবেদনের শুনানি বৃহস্পতিবার

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদার বিরুদ্ধে করা তদন্ত ডায়েরি (রেকর্ডপত্র ও সিডি)এবং তদন্তকর্মকর্তা (আইও’র) সাক্ষ্য পুনরায় গ্রহণ করা সংক্রান্ত দুই আবেদনের  ওপর  বুধবার  শুনানি না করে নট টুডে করে বৃহস্পতিবার দিন শুনানির দিন ঠিক করেছেন হাইকোর্ট।

 

বুধবার হাই কোর্টের বিচারপতি মিফতাহ উদ্দিন চৌধুরী ও বিচারপতি খিজির আহমেদ চৌধুরীর সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চে আবেদনের ওপর শুনানি না করে নট টুডে করেন আদালত।

 

গত ১৭ এপ্রিল রবিবার ওই দুটি আবেদন খারিজ করেন বিচারিক আদালত। তার পরের দিন ১৮ এপ্রিল ওই খারিজ আদেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রিভিশন আবেদন করেন তার আইনজীবীরা।

 

এর আগে ১৮ এপ্রিল সোমবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার কার্যক্রমের বিষয়ে করা দুটি আবেদন খারিজের রিভিশন এবং মামলার কার্যক্রম স্থগিত চেয়ে আবেদন করেন বলে জানান ব্যারিস্টার রাগিফ রউফ চৌধুরী।

 

এই মামলার কার্যক্রম ঢাকার বকশীবাজার আলিয়া মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে স্থাপিত অস্থায়ী বিশেষ আদালতের বিচারক আবু আহমেদ জমাদারের আদালতে চলছে।

 

১৭ এপ্রিল রবিবার এ সংক্রান্ত দুটি আবদেন খারিজ করেন। একই সঙ্গে খালেদার আত্মপক্ষ সমর্থনের বিষষে পরবর্তী শুনানির  জন্য  আগামী ২৫ এপ্রিল নতুন তারিখ ধার্য করে আদেশ দেন।

 

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে তিন কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ২০১০ সালের ৮ অগাস্ট পাঁচজনের বিরুদ্ধে তেজগাঁও থানায় এ মামলা দায়ের করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

 

খালেদা জিয়া ছাড়া অন্য আসামিরা হলেন- তার সাবেক রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, হারিছের তখনকার সহকারী একান্ত সচিব ও বিআইডব্লিউটিএ-এর নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জিয়াউল ইসলাম মুন্না এবং ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান।

 

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে তিন কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ২০১০ সালের ৮ অগাস্ট পাঁচজনের বিরুদ্ধে তেজগাঁও থানায় এ মামলা দায়ের করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

 

খালেদা জিয়া ছাড়া অন্য আসামিরা হলেন- তার সাবেক রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, হারিছের তখনকার সহকারী একান্ত সচিব ও বিআইডব্লিউটিএ-এর নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জিয়াউল ইসলাম মুন্না এবং ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।