মাওলানা মুহিউদ্দীন খানের ইন্তেকালে খালেদার শোক

ইসলামী ঐক্যজোটের ভাইস চেয়ারম্যান, ২০ দলীয় জোটের অন্যতম নেতা, দেশের বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ ও প্রখ্যাত আলেম মাওলানা মহিউদ্দিন খানের ইন্তেকালে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।

 

দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত গণমাধ্যমে পাঠানো শোকবাণীতে বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, ‘মাওলানা মহিউদ্দিন খান ছিলেন একজন ইসলামী চিন্তাবিদ, প্রখ্যাত আলেম এবং একজন নিবেদিতপ্রাণ রাজনীতিবিদ। তিনি সত্য, ন্যায় ও ইনসাফের পথে মানুষকে আহ্বান করতেন। একজন সাংবাদিক হিসেবে তিনি মত প্রকাশের স্বাধীনতায় দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করতেন।’

 

২০ দলের প্রধান খালেদা জিয়া বলেন, ‘মাওলানা মহিউদ্দীন খান তার লেখনি এবং রাজনৈতিক বক্তব্যে বহুমাত্রিক গণতন্ত্রের পক্ষে সবসময় সোচ্চার ছিলেন। গণতন্ত্র পূণঃরুদ্ধারের আন্দোলনে ২০ দলীয় জোটের শরীক দলের একজন নেতা হিসেবে তিনি সক্রিয় ভূমিকা পালন করেছেন। সরকারের রক্তচক্ষু তাকে তার নীতি ও কর্তব্যকর্ম থেকে বিন্দুমাত্র টলাতে পারেনি।’

 

দেশের বিশিষ্ট আলেম ও ইসলামী চিন্তাবিদ হিসেবে তিনি দেশবাসীর নিকট অত্যন্ত শ্রদ্ধেয় ছিলেন। এই মুহূর্তে দেশের চরম সংকটকালে পৃথিবী থেকে তার চিরবিদায়ে এক বিশাল শূন্যতার সৃষ্টি হলো, বলেন বেগম জিয়া।

 

শোকবাণীতে খালেদা জিয়া মরহুম মাওলানা মহিউদ্দিন খানের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং তার শোকাহত পরিবারবর্গ, নিকটজন, গুণগ্রাহী ও শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

 

অপর এক শোকবার্তায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘ইসলামী ঐক্যজোটের ভাইস চেয়ারম্যান, বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ ও মাসিক মদিনার সম্পাদক মাওলানা মহিউদ্দিন খান বাংলাদেশে ইসলামী জ্ঞান চর্চার মাধ্যমে আদর্শ সমাজ প্রতিষ্ঠায় অসামান্য অবদান রেখেছেন। একজন প্রসিদ্ধ আলেম এবং খ্যাতিসম্পন্ন ইসলামী চিন্তাবিদ হিসেবে তিনি মানুষকে সবসময় সত্য ও সরল পথের কথা বলেছেন।’

 

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘একজন প্রসিদ্ধ ইসলামী পণ্ডিত হিসেবে তিনি ছিলেন সর্বজন শ্রদ্ধেয়। আমি মরহুম মাওলানা মহিউদ্দিন খান এর রুহের মাগফিরাত কামনা এবং শোকসন্তপ্ত পরিবার, আত্মীয়স্বজন ও শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি গভীর সহমর্মিতা জ্ঞাপন করছি।’

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।