আন্তর্জাতিক বাজার খুঁজে বের করতে হবে

ব্যবসায়ীদের নতুন বাজার খুঁজে বের করতে বললেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, “কোন দেশে কোন পণ্যের চাহিদা সেটা বিশ্লেষণ করে আন্তর্জাতিক বাজার খুঁজে বের করতে হবে।” রোববার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে রফতানি উন্নয়ন ব্যুরো ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয় আয়োজিত ‘জাতীয় রপ্তানি ট্রফি’ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান।

 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, “আপনারা নতুন নতুন বাজার খুঁজে বেড়ান। কোন দেশে কোন পণ্যের চাহিদা সেটা বিশ্লেষণ করে বাজার খুঁজুন। নতুন বাজার খুঁজে নিজেদের বের করতে হবে। এক্ষেত্রে সরকারের পক্ষ থেকে সহযোগিতা করা হবে। কিন্তু বাজার খোঁজার উদ্যোগটা আপনাদের নিতে হবে।”

 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমরা ব্যবসায়ের জন্য আসিনি। ব্যবসায়ীদের সবরকমের সুযোগ-সুবিধা দেয়ার জন্য কাজ করছি। বিশ্বে অর্থনৈতিক মন্দাটা যদি না হতো, আমাদের রফতানির টাকার অংকটা আরো বেশি দেখাতে পারতাম। তারপরও রফতানিতে যা আয় হচ্ছে, সেটা বড় কথা।” “ইতোমধ্যে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নিত হয়েছি। আমরা নিন্ম মধ্যম আয়ের দেশ হিসেবে থাকতে চাই না।”

 

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ে শেখ হাসিনা বলেন, “একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্ব দিয়ে স্বাধীনতা অর্জনের পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান চেয়েছিলেন এদেশের মানুষকে উন্নত জীবন দিতে। কিন্তু ১৫ আগস্টে নির্মমভাবে তাকে হত্যা করা হয়। তারপর থেকে ২১ বছর বাংলাদেশকে পিছিয়ে দেয়ার চক্রান্ত হয়েছিল।”

 

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি তাজুল ইসলাম, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হেদায়েত উল্লাহ আল মামুন, এফবিসিসিআই’র সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমাদ, রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) ভাইস চেয়ারম্যান মরফুহা সুলতানা প্রমুখ।

 

অনুষ্ঠানে ২০১১-২০১২ ও ২০১২-২০১৩ বছরের জন্য সর্বমোট ১১৩টি জাতীয় রফতানি ট্রফি ও সনদ বিতরণ করা হয়। যার মধ্যে ৫২টি স্বর্ণ, ৩৭ রুপা, ২৪ ব্রোঞ্জ ট্রফি রয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।