খালেদার বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন ২৭ সেপ্টেম্বর

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ২৭ সেপ্টেম্বর দিন ধার্য করেছেন আদালত। এ নিয়ে মামলাটির জন্য ২৩ বার সময় পেছানো হলো। সোমবার ঢাকার মহানগর হাকিম আবদুল্লাহ আল মাসুদ এ দিন ধার্য করেন।

 

এর আগে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আজ দিন নির্ধারিত ছিল। কিন্তু শাহবাগ থানার পুলিশ তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করতে না পারায় বিচারক তারিখ পিছিয়ে আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর দিন নির্ধারণ করেন।

 

বাংলাদেশ জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এ বি সিদ্দিকী ২০১৪ সালের ২১ অক্টোবর ঢাকার মূখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম) আদালতে বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। ওই দিন শুনানি শেষে শাহবাগ থানার পুলিশকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন বিচারক।

 

খালেদা জিয়া ২০১৪ সালের ১৪ অক্টোবর বিকেলে রাজধানীতে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে শুভ বিজয়া অনুষ্ঠানে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে বলেছিলেন, “বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ধর্ম নিরপেক্ষতার মুখোশ পরে আছে। আসলে দলটি ধর্মহীনতায় বিশ্বাসী। আওয়ামী লীগের কাছে কোনো ধর্মের মানুষ নিরাপদ নয়। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে হিন্দুদের সম্পত্তি দখল করেছে। হিন্দুদের ওপর হামলা করেছে।”

 

এ ঘটনায় দণ্ডবিধির ১৫৩(ক) ও ২৯৫(ক) ধারার অপরাধে মামলা দায়ের করা হয়। মামলায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আবেদন করা হয়েছিল।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।