চাল বিতরণে অনিয়মের কথা স্বীকার করলেন খাদ্যমন্ত্রী

খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় ১০ টাকা দরে চাল বিতরণে ব্যাপক অনিয়ম হয়েছে বলে স্বীকার করেছেন খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম। মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে খাদ্য মন্ত্রণালয় আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন খাদ্যমন্ত্রী।

 

কামরুল ইসলাম বলেন, ‘হতদরিদ্রদের জন্য এ কর্মসূচি নেয়া হয়েছিল। কিন্তু দরিদ্রদের তালিকা তৈরির ক্ষেত্রে ব্যাপক অনিয়ম হয়েছে। চাল বিতরণের সময় ডিলাররা মাপে কম দিয়েছেন। খাদ্য পরিদর্শকদের পরিদর্শনে এ চিত্র উঠে এসেছে।’

 

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা অনিয়মকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছি। ৪৪ জন ডিলারের ডিলারশিপ বাতিল করা হয়েছে। ১১টি ফৌজদারি মামলা হয়েছে। দরিদ্রবান্ধব এ কর্মসূচিতে যারাই অনিয়ম করবে, তারা রেহাই পাবে না।’

 

খাদ্যমন্ত্রী ওই অনিয়ম প্রসঙ্গে আরো বলেন, ‘দরিদ্রদের জন্য ১০ টাকা দরে চাল আমাদের অঙ্গীকার ছিল। আমরা তা পূরণ করেছি। কিন্তু আমাদের এ কর্মসূচিকে বাধাগ্রস্ত করার জন্য চেষ্টা করা হচ্ছে। তবে বাধাদানকারী যে দলের বা মতের হোক, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

 

চালের দাম বৃদ্ধি প্রসঙ্গে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, ‘আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে চালের দাম কমে সহনীয় পর্যায়ে আসবে।’

 

উপস্থিত সাংবাদিকদের মন্ত্রী বলেন, এ কর্মসূচিতে আপনারাও আমাদেরকে সহযোগিতা করুন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।