গণসংযোগে এগিয়ে আছেন জনাব আহসানুল ইসলাম টিটু - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

গণসংযোগে এগিয়ে আছেন জনাব আহসানুল ইসলাম টিটু



নিউজ ডেস্ক, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সারাদেশের বিভিন্ন আসনে বিভিন্ন দলের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে ব্যাপক তোড়জোড় চলছে। টাঙ্গাইল ৬ আসনটিও ( নাগরপুর-দেলদুয়ার) এর ব্যাতিক্রম নয়। এখানে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামিলীগসহ ছোট বড় বিভিন্ন দলের প্রার্থীরা চালাচ্ছেন ব্যাপক গণসংযোগ। কিছুদিন অন্তর অন্তর এখানে কোন না কোন মনোনয়ন প্রত্যাশীর উপস্থিতিতে পথসভা, জনসভা, মিছিল লেগেই আছে। শ্লোগানে, মিছিলে মুখরিত এ আসনের নেতা কর্মীরাও বর্তমানে বেশ চাঙা। কিন্তু তারপরেও একটা প্রশ্ন যেন থেকেই যায়। আর তা হল কে পাবেন সেই প্রত্যাশিত ও সোনার হরিণসম মনোনয়ন? কে হবেন সেই ভাগ্যবান নেতা যাকে দলীয় প্রতীকে নির্বাচন করার অনুমতি দেবে কেন্দ্র? তবে বিভিন্ন দলের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের আনাগোনা থাকলেও সরেজমিনে পরিদর্শন করে দেখা যায় দুর্নীতি নামক ব্যাধিতে আক্রান্ত বিএনপির প্রতি এ আসনের জনসাধারণের রয়েছে চরম অনীহা। এবার রইলো ক্ষমতাসীন দল আওয়ামিলীগ।

আওয়ামীলীগের হয়ে নির্বাচনের অংশইচ্ছু মনোনয়নপ্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন আসনটির বর্তমান সাংসদ খন্দকর আব্দুল বাতেন, প্রতিমন্ত্রী এ্যাড. তারানা হালিম এবং টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামীলীগের শিল্প ও বানিজ্য বিষয়ক সম্পাদক, বিশিষ্ট শিল্পপতি ও সমাজ সেবক জনাব আহসানুল ইসলাম টিটু। তবে এই তিনজনের মধ্যে গনসংযোগে এগিয়ে আছেন জনাব আহসানুল ইসলাম টিটু। এর কারণ হিসেবে জানা যায়, বর্তমান সাংসদের ওপর অধিকাংশ নেতাকর্মী ও জনসাধারনই ভীষন অসুন্তুষ্ট। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বেশ কয়েজন কর্মী ও জন সাধারনের নিকট হতে জানা যায় এর নেপথ্যে রয়েছে উন্নয়ন বিমুখ সাংসদের নিজ আসনের প্রতি বিমাতাসুলভ আচরণ এবং চাকরি বানিজ্য। এসবই যেন কাল হয়ে দাড়িয়েছে বর্তমান এমপির জন্য। অপরদিকে প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিমের এ আসনে কয়েকদিন ধরে আনাগোনা হওয়াতে জনসাধারনের মাঝে তার কোন ইমেজই তৈরী হয়নি এখন পর্যন্ত। এদিক থেকে এগিয়ে আছেন আহসানুল ইসলাম টিটু।

সাংসদের বিমাতাসুলভ আচরণে, ২০০৮ সালে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে দলে বিরুদ্ধাচরণে তার দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন আসনটির আওয়ামী নেতৃবৃন্দ এবং প্রতিমন্ত্রীর নবআগমন এখনও তাদের মনে আস্থা সৃষ্টি করতে পারেনি। যার ফলে অধিকাংশ নেতাকর্মীর নিকটই আস্থার প্রতীক হয়ে দাড়িয়েছেন আহাসানুল ইসলাম টিটু। ঘন ঘন নির্বাচনী আসনের বিভিন্ন অঞ্চলে গনসংযোগ চালিয়ে, দলের বিভিন্ন প্রোগ্রামে নিয়মিত উপস্থিত থেকে জনসভা পথসভার মাধ্যমে নাগরপুর-দেলদুয়ার আওয়ামী রাজনীতিতে প্রান চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছেন তিনি।

 

এমনকি তার উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত জনসভা, পথসভায় দলীয় নেতাকর্মীর পাশাপাশি ঝুট ঝামেলা এড়িয়ে চলা সাধারণ মানুষদের ঢল নামছে আজকাল। নিউজ রুম বিডির কৌতুহলী অনুসন্ধানে জানা যায় জনতার সমর্থনের নেপথ্যে রয়েছে বেশকিছু মানবিক কারণ। এগুলো হলো জনাব আহসানুল ইসলাম টিটু দীর্ঘদিন ধরে এ আসনের মানুষের বিনামুল্যে উচ্চশিক্ষা ও সুচিকিৎসার জন্য কাজ করে আসছেন। সিটি ইউনিভার্সিটি এবং তেজগাও শমরিতা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালের ভাইস চেয়ারম্যান আহাসানুল ইসলাম টিটু তার প্রতিষ্ঠানে বিনামুল্যে উচ্চশিক্ষা সুচিকিৎসা নিশ্চিত করেছেন এ জনপদের জনগণের জন্য, যা এ আসনের বারবার জনতাবিমুখ জনপ্রতিনিধির জীম্মায় থাকা এ আসনের জনগনের মাঝে ভাবান্তর সৃষ্টি করেছে। তাই তারাও মনে প্রানে চাচ্ছেন তার প্রার্থীতা। কারণ তাদের বিশ্বাস জনপ্রতিনিধি না হয়ে যে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন তিনি, জনপ্রতিনিধি হলে অবশ্যই তার গতি আরও তরান্বিত হবে।


এ সম্পর্কিত আরো খবর

রাজনীতি এর অন্যান্য খবরসমূহ
পূর্বের সংবাদ