সংঘর্ষে হেফাজত কর্মী সহ নিহত ৩, আহত শতাধিক

রাজধানীর পল্টন এলাকায় পুলিশ, আওয়ামী লীগের কর্মীদের সঙ্গে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে হেফাজতে ইসলামের এক কর্মীসহ ৩ জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধসহ শতাধিক আহত হয়েছে। এখনো থেমে থেমে পল্টন-গুলিস্থান এলাকায় সংঘর্ষ চলছে। বেলা ৩টার দিকে হেফাজতের নেতাকর্মীরা গোলাপ শাহ মাজারের কাছে অবস্থান নিয়েছে। আর র‌্যাব-পুলিশ এবং আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলীয় কার্যালয়ের রাস্তায় অবস্থান নিয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুর দেড়টার দিকে গুলিস্তান এলাকায় একটি মিছিল থেকে আওয়ামী লীগের অফিসে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করা হয়। এ সময় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা হেফাজতের কর্মীদের ধাওয়া করে একজনকে ধরে ফেলে এবং তাকে বেদম পিটুনি দিয়ে পুলিশে তুলে দেয়।

এ খবর পেয়ে হেফাজতের কর্মীরা বঙ্গবন্ধু এভিউয়ের দিকে এগিয়ে গেলে ফের সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে উভয় দলের নেতাকর্মীরা। এ সময় হেফাজতের এক কর্মীকে মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামের পাশে ফেলে আওয়ামী লীগের কর্মীরা লগি-বৈঠা দিয়ে ব্যাপক পিটুনি দেয়। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হলে মারা যায়।

হেফাজতের ঢাকা মহানগরের প্রচার সেলের প্রধান মওলানা আহলুল্লাহ ওয়াসেল  তাদের এক কর্মী নিহতের কথা স্বীকার করেছেন। তবে তিনি তার নাম-পরিচয় জানাতে পারেননি।

ওয়াসেল সংঘর্ষে তাদের শতাধিক নেতাকর্মী আহত হয়েছে বলেও দাবি করেন।

এদিকে, গাবতলী এলাকায় হেফাজতের নেতাকর্মীরা একটি প্রাইভেট কারকে ধাওয়া করলে তা টেকনিক্যাল মোড়ে এসে এক ব্যক্তি চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। তবে এখন পর্যন্ত ওই পথচারীর নাম-ঠিকানা জানাতে পারেনি পুলিশ।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।