১০ উইকেটে হারল বাংলাদেশ

ঢাকা, নভেম্বর ২৫(খবর তরঙ্গ ডটকম)-  খুলনার অভিষেক টেস্টে পঞ্চম ও শেষ দিনের প্রথম সেশনেই বাংলাদেশকে ১০ উইকেটে হারিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এই জয়ে দুই ম্যাচের সিরিজ ২-০ ব্যবধানে জিতল অতিথিরা। ৩০ নভেম্বর থেকে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। রোববার ইনিংস হার এড়ানো বাংলাদেশ জয়ের জন্য ওয়েস্ট ইন্ডিজকে মাত্র ২৭ রানের লক্ষ্য দিয়েছিল। দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল (২০*) ও কাইরন পাওয়েল (৯*) মধ্যাহ্ন-বিরতির আগেই ৪ ওভার ৪ বলে অতিথিদের জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে দেন।

টেস্টে এ নিয়ে তৃতীয়বার ১০ উইকেট হারল বাংলাদেশ।

খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে ৬ উইকেটে ২২৬ রান নিয়ে দিনের খেলা শুরু করে বাংলাদেশ। এক ঘন্টার কিছু বেশি সময় ব্যাট করে ৬১ রান যোগ করে শেষ ৪ উইকেট হারিয়ে ২৮৭ রানে অলআউট হয়ে যায় স্বাগতিকরা।

আগের দিন সাকিব আল হাসানকে ফিরিয়ে দেয়া বীরাসামি পারমল অসমাপ্ত ওভার করতে এসে পঞ্চম বলে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদকে (২) দীনেশ রামদিনের ক্যাচে পরিণত করে দলকে প্রথম সাফল্য এনে দেন।

পঞ্চম দিন বল করতে এসে প্রথম বলে সোহাগ গাজীকে বোল্ড করে অতিথিদের ইনিংস জয়ের সম্ভাবনা জাগিয়ে তোলেন টিনো বেস্ট। কিন্তু নাসির হোসেনের ৯৪ রানের সৌজন্যে অতিথিদের আরেকবার ব্যাটিংয়ে নামা নিশ্চিত করে বাংলাদেশ।

ঢাকা টেস্টে বেস্টের বলে ক্রিস গেইলের হাতে ক্যাচ দিয়ে ৯৬ রানে সাজঘরে ফিরেছিলেন নাসির। এবার ৯৪ রানে বোল্ড হয়ে শতকের সুযোগ হাতছাড়া করেছেন তিনি। নাসিরের বিদায়ের পর রুবেল হোসেনের ১৪ ও আবুল হাসানের অপরাজিত ৭ রানের সুবাদে অতিথিদের ২৭ রানের লক্ষ্য ছুড়ে দেয় স্বাগতিকরা।

ঢাকা টেস্টে প্রথমবারের মতো ৫ উইকেট নেয়া বেস্ট খুলনায় ৫ উইকেট নিয়েছেন। ৪০ রানে ৬ উইকেট নিয়ে অতিথিদের সেরা বোলার তিনিই। এটি তার সেরা বোলিং।

প্রথম ইনিংসে ৩৮৭ রান করে বাংলাদেশ। জবাবে ৯ উইকেটে ৬৪৮ রানে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে ২৬১ রানের লিড নেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ: ৩৮৭ ও ২৮৭ (তামিম ২৮, নাজিম ০, নাফীস ২১, নাঈম ২, সাকিব ৯৭, মুশফিক ১০, নাসির ৯৪, মাহমুদুল্লাহ ২, সোহাগ ৭, হাসান ৭*, রুবেল ১৪, বেস্ট ৬/৪০, পারমল ৩/৬৭, এডওয়ার্ডস ১/৯৫)

ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ৬৪৮/৯ ডি. ও ৩০/০ (গেইল ২০*, পাওয়েল ৯*)

ম্যাচ সেরা: মারলন স্যামুয়েলস (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)

সিরিজ সেরা: শিবনারায়ণ চন্দরপল (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।