মেসির জোড়া গোলে বার্সার জয় - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

মেসির জোড়া গোলে বার্সার জয়



(খবর তরঙ্গ ডটকম)

নিউজ ডেস্ক,নভেম্বর ২৬ (খবর তরঙ্গ ডটকম)- লিওনেল মেসি ও আন্দ্রেস ইনিয়েস্তায় ভর করে সুযোগের সদ্ব্যবহার করেছে বার্সা। মেসির জোড়া গোলে লেভান্তেকে ৪-০ গোলে হারিয়েছে তারা। এই জয়ে রিয়ালের চেয়ে ১১ পয়েন্ট এগিয়ে থেকে শিরোপার পথে টিটো ভিলানোভার শিষ্যরা। এস্তাদিও সিওদাদ ডি ভালেন্সিয়ায় লেভান্তের বিপক্ষে বার্সার বড় জয়ের আসল নায়ক আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা। প্রথমার্ধে বার্সাকে ঠেকিয়ে রাখা লেভান্তেকে ১৬ মিনিটে চার গোল হজম করতে হয়! প্রতিটি গোলেই অবদান রাখেন ইনিয়েস্তা। এই মিডফিল্ডারের বানিয়ে দেওয়া বলেই ৪৭ ও ৫২ মিনিটে গোল করে মৌসুমের ১১তম জোড়া গোলের দেখা পান আর্জেন্টিনা তারকা মেসি। অন্যদিকে ৫৭ মিনিটে পেড্রোর পাস থেকে নিজেই জাল কাঁপান ইনিয়েস্তা। ৬৩ মিনিটে ফ্যাবিগাসকে বলের যোগান দিয়ে দলের চতুর্থ গোলেরও উৎস তৈরী করেন এই স্পেন মিডফিল্ডার। ৮৭ মিনিটে ব্যবধান কমানোর সুযোগ হারায় লেভান্তে। হোসে বারকেরোর পেনাল্টি এবং ফিরতি শট ঠেকিয়ে দিয়ে ম্যাচে বার্সাকে গোলহজম থেকে বাঁচিয়ে দেন গোলরক্ষক ভিক্টর ভালদেস। লেভান্তের বিপক্ষে এই জয়ে শিরোপা পথে অনেকখানিই এগিয়ে গেছে টিটো ভিলানোভার শিষ্যরা। যদিও লিগ এখনো মাঝপথেও আসেনি। কিন্তু লা লিগায় কোনো দলের ৯ পয়েন্ট বা এর বেশি পিছিয়ে থেকে শিরোপা জয়ের নজির নেই। ১৩ রাউন্ডে ১২ জয় ও এক জয়ে মৌসুমের সেরা সূচনার রিয়ালের রেকর্ডেও ভাগ বসিয়েছে বার্সা। ১৯৯১-’৯২ মৌসুমে স্পেনের শীর্ষ লিগে সেরা সূচনার ওই মাইলফলক গড়েছিলো রিয়াল। মৌসুমের ১১তম মাল্টি গোলে ইতিহাস গড়তে যাচ্ছেন মেসিও। এক বছরে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডের মালিক হতে যাচেছন এই আর্জেন্টিনা ফরোয়ার্ড। আর মাত্র তিনটি গোল হলেই তিনি ছুঁয়ে ফেলবেন গেরার্ড মুলারের প্রায় চারদশক ধরে অক্ষত থাকা রেকর্ডটি। ১৯৭২ সালে বায়ার্ন মিউনিখ ও জার্মানির হয়ে ৮২টি গোল করেছিলেন মুলার। এদিকে রোববারের অপর ম্যাচে সেভিয়াকে হারিয়ে বার্সার মূল শিরোপা প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে উঠেছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। ভিনসেন্টে ক্যালদেরন স্টেডিয়ামে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ ৪-০ গোলে হারায় ২১ ও ৮৩ মিনিটে দুই লাল কার্ডে নয় জনের পরিণত হওয়া সেভিয়াকে। ২১ মিনিটে বক্সে জর্জ কোককে ট্যাকল করায় সরাসরি লাল কার্ড দেখেন সেভিয়ার ফ্যাজিও ফ্রেডেরিকো। ৭৮ ও ৮৩ মিনিটে দুই হলুদ কার্ড দেখেন মিডফিল্ডার ইভান রাকিতিচ। ২২ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে লিগে ১১তম গোল আদায় করেন অ্যাটলেটিকোর স্ট্রাইকার রাদামেল ফ্যালকাও। ৪০ মিনিটে এমির স্পাহিকের আত্মঘাতি গোলে আরো পিছিয়ে পড়ে সেভিয়া। বিরতির আগের মিনিটে জর্জ কোকের গোলে ৩-০ তে এগিয়ে যায় অ্যাটলেটিকো। ম্যাচের ইনজুরি সময়ে মিরান্ডার গোলে ৪-০ ব্যবধানে জয় তুলে নেয় কোচ দিয়োগো সিমেওনের দল। আট পয়েন্ট এগিয়ে থেকেই আগামী সপ্তাহে অ্যাটলেটিকো মুখোমুখি হবে নগর প্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদের। ১৩ ম্যাচ শেষে বার্সেলোনার সংগ্রহ ৩৭। সমান ম্যাচে ৩৪ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয়স্থানে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। তৃতীয়স্থানে থাকা রিয়ালের সংগ্রহ ২৬।


খেলাধুলা এর অন্যান্য খবরসমূহ
পূর্বের সংবাদ
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০