তিন মোড়লের ‘বিতর্কিত’ প্রস্তাব পাস

আইসিসির প্রশাসনিক ও আর্থিক কাঠামো পরিবর্তনে ক্রিকেটের ‘তিন মোড়ল’ খ্যাত ভারত, অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের ‘বিতর্কিত’ প্রস্তাব পাস হয়েছে।

দ্বি-স্তরের টেস্ট ফরমেট প্রস্তাব থেকে বাদ দেওয়ায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিয়েছে। এতে করে বিসিবি মনে করছে, বাংলাদেশের টেস্ট স্ট্যাটাস নিয়ে কোনো সমস্যা হবে না।

আইসিসির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, শনিবার সিঙ্গাপুরে আইসিসির সভায় ১০টি স্থায়ী দেশের মধ্যে বাংলাদেশসহ আটটি দেশ প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দেয়। ভোটদানে বিরত ছিল শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তান বোর্ড।

এর আগে দুবাইতে আইসিসির সভায় তিনটি প্রভাবশালী বোর্ডের খসড়া প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা হলেও সেবার তা পাসের জন্য ভোটাভুটি হয়নি।

তবে এই প্রস্তাবে কিছু পরিবর্তনের পর সব বোর্ড এর অনেক বিষয়ে ‘একমত’ হয়েছে বলে আইসিসি জানিয়েছিল, যা শনিবার ভোটাভুটিতে নিশ্চিত হলো।

অবশ্য বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড এ প্রস্তাবের বিপক্ষে অবস্থানের কথা জানালেও শেষ পর্যন্ত প্রস্তাব থেকে দ্বি-স্তরের টেস্ট ক্রিকেট বাদ দেওয়ার পর ভোট দিলো।

এছাড়া শনিবারের সভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, আগামী জুলাই থেকে ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ বোর্ডের (বিসিসিআই) প্রেসিডেন্ট এন শ্রীনিবাসন আইসিসির সভাপতি হতে যাচ্ছেন।

অন্যদিকে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ) সভাপতি ওয়ালি এডওয়ার্ডস নবগঠিত নির্বাহী কমিটির প্রধান হবেন। এই কমিটি আইসিসি বোর্ডের কাছে রিপোর্ট পেশ করবে। ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড চেয়ারম্যান জাইলস ক্লার্ক প্রধান হবেন ফিন্যান্স এন্ড কমার্শিয়াল অ্যাফেয়ার্স কমিটির।

সভায় আরো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে দ্বি-স্তর বিশিষ্ট টেস্ট ব্যবস্থা নিয়ে। বলা হয়েছে, সহযোগী দেশগুলোও সুযোগ পাবে টেস্ট খেলার। সেক্ষেত্রে তাদের খেলতে হবে আইসিসি ইন্টারকন্টিনেন্টাল কাপ। চ্যাম্পিয়ন দল খেলবে প্লে-অফে পূর্ণ সদস্য র‍্যার্ঙ্কিংয়ের সর্বশেষ দলের সঙ্গে। এর মানে বাংলাদেশকে খেলতে হবে প্লে-অফ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।