ইংল্যান্ডের সঙ্গে সিরিজ হবে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ

সব পরিসংখ্যানই এখন বাংলাদেশের পক্ষে। তারপরও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে নিজেদের ফেভারিট ভাবতে চান না বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। শুক্রবার থেকে শুরু হতে যাওয়া এই সিরিজ প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে বলে মনে করেন তিনি।

 

বৃহস্পতিবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে সিরিজপূর্ব এক সংবাদ সম্মেলনে মাশরাফি বলেন, “কয়েকজন খেলোয়াড় আসেননি বলে ইংল্যান্ডের এই দলটিকে মোটেও দুর্বল ভাবা ঠিক হবে না। বেশ কিছুদিন ধরে তারা দারুণ ক্রিকেট খেলছে। অতিথি দলটির বিপক্ষে আমাদের ফেভারিট ভাবা ঠিক হবে না। আমি বলবো, তাদের সঙ্গে আমাদের লড়াইটা প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে। আমরা প্রস্তুত তাদের মুখোমুখি হওয়ার জন্য।”

 

এর আগে ঘরের মাঠে সর্বশেষ ছয়টি সিরিজ জিতেছে বাংলাদেশ। হারিয়েছে পাকিস্তান, ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার মতো দলকে। এবারের প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ডের বিপক্ষেও সর্বশেষ চার ম্যাচের মধ্যে তিনটিতেই জিতেছে বাংলাদেশ। বিশেষ করে গত বিশ্বকাপে তাদের বিপক্ষে দারুণ একটি জয় পেয়েছিল লাল-সবুজের দল।

 

অবশ্য এই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আগের ভালো খেলার কিছু স্মৃতি রয়েছে বাংলাদেশের। এখন এই স্মৃতিগুলো মনে করতে চান না বাংলাদেশ অধিনায়ক। তিনি বলেন, “হ্যাঁ, এটা ঠিক তাদের বিপক্ষে আগের ভালো কিছু সাফল্য আছে। কিন্তু পুরোনো স্মৃতিগুলো আমরা এখন মনে করতে চাই না। আমাদের ভাবনা শুধু এখন এই সিরিজ নিয়েই।”

 

তবে ঘরের মাঠে ভালো খেলার আশা ব্যক্ত করে মাশরাফি বলেন, “ঘরের মাঠে বেশ কিছুদিন ধরেই আমরা যে ভালো ক্রিকেট খেলছি, এই ধারাবাহিকতা আসন্ন এই সিরিজেও ধরে রাখতে চাই। তবে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সাফল্য পাওয়া খুব একটা সহজ হবে না।”

 

শুক্রবার ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ শুরু হবে। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে হবে সিরিজের প্রথম ওয়ানডে। একই মাঠে ৯ অক্টোবর হবে দ্বিতীয় ওয়ানডে।

 

১২ অক্টোবর চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে। ২০ থেকে ২৪ অক্টোবর এই মাঠেই হবে সিরিজের প্রথম টেস্ট। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট হবে ২৮ অক্টোবর থেকে ১ নভেম্বর।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।