শ্রীলংকার বিপক্ষে সাকিব-তামিমে টাইগারদের সংগ্রহ ৩২৪

শ্রীলংকার বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে তামিম ইকবাল এবং সাকিব আল হাসানের দুর্দান্ত ব্যাটে ভর করে ৩২৪ রান সংগ্রহ করেছে টাইগাররা।

শনিবার রনগিরি ডাম্বুলা ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে টসে হেরে ব্যাট করতে নামা বাংলাদেশ তামিম ইকবালের সেঞ্চুরি এবং সাকিব ও সাব্বিরের দুর্দান্ত অর্ধশতকে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ৩২৪ রান করে।

তামিম ইকবাল ১২৭, সাকিব ৭২ এবং সাব্বির ৫৪ রান করেন।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটিতে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন তামিম ইকবাল। ১২৭ বলে ৮ম ওয়ানডে সেঞ্চুরিটি তুলে নেন তিনি।

ডাম্বুলা স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩টায় শুরু হয়েছে ম্যাচটি। টস জিতে বাংলাদেশকে ব্যাট করতে আমন্ত্রণ জানান শ্রীলঙ্কার ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক উপল থারাঙ্গা।

শুরুটা সতর্ক থেকেই করেছিলেন তামিম-সৌম্য। তবে, ইনিংসের পঞ্চম ওভারে বিদায় নেন সৌম্য। লাকমলের করা চতুর্থ বলে খোঁচা দিতে গিয়ে উইকেটের পেছনে দিনেশ চান্দিমালের গ্লাভসবন্দি হন তিনি। সাজঘরে ফেরার আগে তার ব্যাট থেকে আসে ১০ রান। ১৩ বলের ইনিংসে দুটি চার হাঁকান সৌম্য। দলীয় ২৯ রানের মাথায় প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

টেস্টে সিরিজ ড্র (১-১) হওয়ার পর এই তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের দিকে তুমুল আগ্রহ নিয়ে তাকিয়ে দুই দল। ডাম্বুলায় আজ থেকে শুরু হওয়া ওয়ানডে সিরিজে বাড়তি শক্তি বদলে যাওয়া টাইগারদের পারফর্ম। শেষবার এই মাঠে ২০১০ সালের এশিয়া কাপে খেলেছিল লাল-সবুজরা। সে আসরের সবক’টি ম্যাচই বাজে ভাবে হারতে হয়েছিল বাংলাদেশকে।

তবে, ২০১০ সালের তুলনায় এই বাংলাদেশ সম্পূর্ণ ভিন্ন। ক্রিকেট বিশ্বকে এখন আর চমকিয়ে দিতে হয় না টাইগারদের। যোগ্যতার প্রমাণ দিয়েই জায়ান্ট দলগুলোর বিপক্ষে জয় ছিনিয়ে নেয়। মাশরাফির নেতৃত্বে এই বাংলাদেশ এখন অনেক পরিণত আর অভিজ্ঞ।