সেমিফাইনালে বাংলাদেশ, ভুটানের বিপক্ষে ৩-০ গোলে এগিয়ে - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

সেমিফাইনালে বাংলাদেশ, ভুটানের বিপক্ষে ৩-০ গোলে এগিয়ে



নিউজ ডেস্ক, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম সেমিফাইনালে বাংলাদেশ মুখোমুখি হয়েছে স্বাগতিক ভুটানের। চাংলিমিথাং স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা সাতটায় শুরু হওয়া ম্যাচে ৩-০ গোলে এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা।

 

এদিন বাংলাদেশকে গোলের দেখা পেতে খুব বেশি সময় অপেক্ষা করতে হয়নি। ম্যাচের ১৮ মিনিটে লক্ষ্যভেদ করে আনাই মোগিনি। ঠিক ২০ মিনিট পর ম্যাচের ব্যবধান দ্বিগুণ করে আনুচিং মোগিনি। ডি-বক্সের বাইরে থেকে চমৎকার শেটে বল জালে জড়ায় তিনি।

ম্যাচের ৪৩ মিনিটে বাংলাদেশ দলের গোল ব্যবধান আরো বড় করে তহুরা খাতুন। দলের পক্ষে তৃতীয় গোল করে বড় জয়ের আশা জাগিয়ে তোলে।

 

অন্যদিকে বাংলাদেশকে রুখে দিয়ে ফাইনালে যেতে চায় ভুটান। কিন্তু সেটা ততটা সহজ হবে বলে মনে হচ্ছে না। প্রথমার্ধেই বাংলাদেশ স্বাগতিকদের জালে ঢুকিয়ে দিয়ে তিনটি গোল। খেলার মাঠের পরিস্থিতি দেখে মনে হচ্ছে স্বাগতিকদের হারিয়ে সহজেই ফাইলে চলে যাচ্ছে বাংলাদেশ।

 

বাংলাদেশের মেয়েদের দাপট শুধু আজকের ম্যাচেই নয়, প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের জালে ১৪ গোল ও দ্বিতীয় ম্যাচে নেপালের বিপক্ষে ৩-০ গোলের জয় নিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে খেলতে নেমেছে বাংলাদেশ। এই বাংলাদেশকে রুখে দেওয়াটা তো বেশ কঠিন ব্যাপারই স্বাগতিকদের জন্য।

 

এছাড়া ভুটানকে নিয়ে অত দুশ্চিন্তায় নেই বাংলাদেশের মেয়ে ফুটবলাররা। কেননা, এ পর্যন্ত সিনিয়র ও বয়সভিত্তিক দল মিলিয়ে চারবার দুই দল মুখোমুখি হয়েছে। সব কটি ম্যাচেই জিতেছে বাংলাদেশ। ২০১০ কক্সবাজারে মেয়েদের সাফে প্রথমবার ভুটানকে ৯-০ গোলে, ২০১২ সালে কলম্বোতে ১-০ ব্যবধানে, নেপালে ২০১৫ এএফসি অনূর্ধ্ব-১৪ আঞ্চলিক চ্যাম্পিয়নশিপে ১৬-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছিল বাংলাদেশ। আর গত বছর ঢাকায় শেষ মুখোমুখিতে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের জয় ৩-০ গোলে।

 

গত টুর্নামেন্টের চেয়ে ভুটানকে এবার শক্তিশালী মনে করা হলেও আজকের মাঠের লড়াইয়ে তা দেখাতে পারছে না। তবে গেলেফু ফুটবল একাডেমিতে এক বছর ধরে এই টুর্নামেন্টের জন্য প্রস্তুতি নিয়েছে দলটি। মেয়েদের ফুটবলের উন্নয়নে কোরিয়ান কোচ সুং জে লি দুই বছর ধরে কাজ করে চলেছেন। ভুটানের ফুটবলে যে উন্নতি হচ্ছে, অন্যান্য ম্যাচে মাঠের খেলায় এরই মধ্যে সেটার প্রমাণ রেখেছে দলটি। শ্রীলঙ্কাকে প্রথম ম্যাচে ৬-০ গোলে হারিয়ে ভুটানের নারী ফুটবলের ইতিহাসে তুলে নিয়েছে প্রথম জয়। পরের ম্যাচে ভারতের কাছে ১-০ গোলে হারলেও দুর্দান্ত খেলেছে ভুটানি মেয়েরা। বিশেষ করে ফরোয়ার্ড দেকি হ্লাজোম ও মিডফিল্ডার সোনম হ্লামো খেলছে দুর্দান্ত। প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেছে সোনম। এখন দেখার বিষয় আজ কারা ফাইনালে জায়গা করে নিতে পারে।


এ সম্পর্কিত আরো খবর

খেলাধুলা এর অন্যান্য খবরসমূহ