জাপা একাংশের চেয়ারম্যান কাজী জাফরের সম্মেলনে ককটেল হামলা

জাতীয় প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে জাতীয় পার্টির একাংশের চেয়ারম্যান কাজী জাফর আহমদের সমাবেশস্থলে শুক্রবার দুপুরে ককটেল হামলা করেছে দুর্বৃত্তরা। এতে তিনজন আহত হয়েছেন। কাজী জাফর আহমেদ এ সময় মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন। এ ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

আহত তিনজনের মধ্যে দুজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন মিরপুর ২ নম্বর ওয়ার্ডের জাতীয় যুব সংহতির সহসভাপতি এরশাদ আহমেদ ও টঙ্গী ৪৭ নম্বর ওয়ার্ডের জাতীয় যুব সংহতির সাংগঠনিক সম্পাদক মো. বিজয় ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, দুপুর দুইটার দিকে সম্মেলন চলাকালে একটি মিছিল সেখানে প্রবেশ করে। এ সময় হলের মধ্যেই তিনটি ককটেল বিস্ফোরণ হয়। এতে অন্ততঃ তিনজন আহত হয়েছেন।

ককটেল বিস্ফোরণের পর উপস্থিত নেতাকর্মীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। পরে আবার সম্মেলন শুরু হয়েছে। তবে, হলরুমে নেতাকর্মীদের উপস্থিতি খুবই কমে দেখা গেছে। আতঙ্কে অনেকেই হলরুমে প্রবেশ করতে পারছেন না।

প্রসঙ্গত, নির্বাচনকালীন সরকারে যোগ দেয়া নিয়ে মতবিরোধের জেরে গত ২৮ নভেম্বর কাজী জাফরকে বহিষ্কারের ঘোষণা দেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ। এর কিছুক্ষণ পরই সংবাদমাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে এরশাদকেই পাল্টা বহিষ্কারের ঘোষণা দেন কাজী জাফর। এ ঘটনার ধারাবাহিকতায় গোলাম মসিহসহ জাতীয় পার্টির আরো কয়েকজন প্রেসিডিয়াম সদস্যকে নিয়ে জাতীয় পার্টির বিশেষ কাউন্সিল করার ঘোষণা দেন কাজী জাফর। শুক্রবার বিকেলে জাতীয় প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে সেই কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এতে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে বহিষ্কার এবং আগামী দিনের আন্দোলনে দলটি কার সঙ্গে যাবে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হওয়ার কথা রয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।