কক্সবাজারে অতিথি পাখিদের আগমন : কলকাকলিতে মুখরিত সাগর দ্ধীপ অঞ্চল গুলো

কক্সবাজারে শীতের বার্তা শুরুর পর অতিথি পাখির আগমন ঘটে থাকে। ঝাঁকে ঝাঁকে অতিথি পাখির দল এসে বাসা বাধঁছে এ জেলার দ্বীপে উপকুলীয় অঞ্চল কুতুবদিয়া, মহেশখালী, সোনাদিয়া, সেন্টমার্টিনসহ  বিভিন্ন স্থানে। পৌষ মাস শুরুর সাথে সাথে সীমান্ত পথ পাড়ি দিয়ে ভারত, পাকিস্তান, থাইল্যান্ড ও মিয়ানমার থেকে হাজার হাজার পথ অতিক্রম করে এই অতিথি পাখির দল দ্বীপ ও সাগর উপকুলীয় আঞ্চলে হাজির হচ্ছে দলে দলে।

এদিকে,অতিথি পাখিদের কলকাকলিতে মুখরিত হয়ে উঠেছে বিশ্বের র্দীঘতম সমুদ্র সৈকতসহ দ্বীপ ও সাগর উপকুলীয় আঞ্চল। কনকনে শীতে এসব স্থান গুলোকে ছিন ছিন মধুর শব্দে বিভোর করে তুলেছে অতিথি পাখিরা।  ঝাঁকে ঝাঁকে অতিথি পাখিরা দূরদেশ থেকে এসে কক্সবাজার জেলার বিভিন্ন স্থানে বসে আপন মনে গান গাইছে।

স্থানীয়রা জানান,প্রতি বছরের ন্যায় এবছরেও অতিথি পাখিরা  দূর দেশ থেকে আসতে শুরু করেছে। জেলার দ্বীপ অঞ্চল ঘুরে দেখা যায়,অন্য সময়ে এসব পাখিদের আনাগোনা চোখে না পড়লেও প্রতি বছর কি এই মুর্হুতে ওই সব এলাকা গুলোতে দেশী-বিদেশী পাখিদের আনাগোনা চোখে পড়ে। শীতে এই সব পাখিগুলো খাবারের জন্য ছুটে আসে সাগর কন্যা দ্ধীপ অঞ্চল গুলোতে। সাগরের পানির উপরি অংশে পড়ে যাওয়া পোকা, ছোট মাছ শিকার করে খেতে দেখা যায় এসব অতিথি পাখিদের।  শীতের তীব্রতার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে এদের সংখ্যাও  বাড়তে থাকে এই সময়ে। শীত শেষ, পাখিরাও ফিরে যায় আপন নীড়ে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।