সারা দেশে নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত ১১

একতরফা নির্বাচনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত সহিংতায় ১১ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এর মধ্যে রংপুরে দুই জামায়াত কর্মী, ঠাকুরগাঁওয়ে সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার, নীলফামারীতে জামায়াত কর্মীসহ দুইজন, দিনাজপুরে বিএনপি কর্মী ও আনসার সদস্য, লালমনিরহাটে যুবদল কর্মী, ফেনীতে দুই বিএনপি কর্মী ও মুন্সীগঞ্জে পুলিশের ধাওয়ায় পুকুরে পড়ে একজন নিহত হয়েছেন। এছাড়া দেশের বিভিন্ন স্থানে ব্যালট পেপার ছিনতাই, ভোটকেন্দ্রে আগুন, ককটেল বিস্ফোরণসহ বিভিন্ন নাশকতার খবর পাওয়া গেছে। যে ১৪৭টি আসনে নির্বাচন হচ্ছে এর কোথাও উৎসবের কোনো আমেজ নেই। সবখানেই বিরাজ করছে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা।

রংপুরের পীরগঞ্জে নিহত
জেলার পীরগাছায় জামায়াতে ইসলামীর নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে দুজন নিহত হয়েছে। নিহত দুজনই জামায়াত-শিবিরের কর্মী।রোববার ভোররাতে পীরগাছার পারুল ইউনিয়নের দেউতি গ্রামে এ সংঘর্ষ হয়।

পীরগাছা থানার ওসি মকবুল হোসেন জানান, ভোররাত ৩টার দিকে রংপুর-৪ আসনের (পীরগাছা-কাউনিয়া) ভোটকেন্দ্র দেউতি স্কুল অ্যান্ড কলেজের দখল নেয়ার চেষ্টা চালায় জামায়াত-শিবির কর্মীরা। এ সময় পুলিশ গুলি চালালে দুজন নিহত হয়।

নিহত মিরাজুল ইসলাম (৩৫) একই ইউনিয়নের আরাজিচালুনিয়া গ্রামের মৃত আজিজউদ্দিনের ছেলে। অন্য জনের পরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ।

ঠাকুরগাঁওয়ে সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারকে পিটিয়ে হত্যা
ভোটের ৯ ঘণ্টা আগে রাতে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের ভোটকেন্দ্রে সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার জোবায়দুর রহমানকে পিটিয়ে হত্যা করেছে।এই ঘটনায় আহত হয়েছেন নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পাঁচ পুলিশ সদস্য।

শনিবার রাত রাত ১০ টার দিকে সদর উপজেলার ভেলাযান উচ্চ বিদ্যালয়ে এই হামলার ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় জোবয়দুর রহমানকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর সেখানে তার মৃত্যু হয়।

ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপার ফয়সল মাহমুদ জানিয়েছেন, এই হত্যার ঘটনার কথা স্বীকার করেছেন।

দিনাজপুরে পুলিশের গুলিতে একজন ও বিরোধীদের হামলায় আনসার সদস্য নিহত
শনিবার রাতে দিনাজপুর সদরের নশিপুর স্কুল কেন্দ্রে হামলার সময় পুলিশের গুলিতে বাবুল হোসেন নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। বিএনপির পক্ষে দাবি করা হয়েছে গুলিতে নিহত বাবুল ১ নম্বর চেহেলগাজী ইউনিয়নের স্থানীয় ওয়ার্ড কমিটির নেতা। তবে পুলিশ এখনো এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেনি।নির্বাচন বিরোধীদের আগুনে সবচেয়ে বেশি তাণ্ডব হয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রী হাসান মাহমুদের নির্বাচনী এলাকা দিনাজপুর ৪ -। ১২০টি কেন্দ্রের মধ্যে আগুনে ছাই হয়েছে ৫৭টি কেন্দ্র। সঙ্গে ব্যালট পেপার ভোট বাক্সসহ অন্যান্য নির্বাচনী উপকরণ। এছাড়াও ছিনিয়ে নেয়া হয়েছে জেলার উল্লেখযোগ্যসংখ্যক কেন্দ্রের ব্যালট পেপারসহ বিভিন্ন উপকরণ।

এদিকে, বেলা ১১টার দিকে দিনাজপুরের চণ্ডিপুর ইউনিয়নের উত্তর শালন্দার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে ঢুকে ওয়াহেদ আলী নামে এক আনসার সদস্যকে পিটিয়ে হত্যা করেছে বিরোধী দলের কর্মীরা। এ সময় নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তারা কেন্দ্র ছেড়ে পালিয়ে যায়।
এ ঘটনায় প্রিজাইডিং কর্মকর্তাসহ পাঁচজন আহত হয়েছেন। দিনাজপুর-৫ আসনের ওই কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ বন্ধ রয়েছে।  পার্বতীপুরের ওসি নুরুজ্জামান জানান,  তিনি সেনাবাহিনীর সদস্যদের নিয়ে ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন।
নীলফামারীতে পুলিশের গুলিতে নিহত
নীলফামারীতে ভোট শুরুর আগেই অন্তত ২৫টি কেন্দ্রে হামলা ও ব্যালট পেপারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। জেলার জলঢাকা ও ডিমলা উপজেলায় কেন্দ্রে হামলা চালাতে গিয়ে পুলিশের গুলিতে দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। গতকাল শনিবার রাত ও আজ রোববার সকালে এ ঘটনা ঘটে।সকাল ১০টার দিকে জলঢাকা উপজেলার কইমারী ইউনিয়নের গাবরোল ২ নম্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে হামলা চালাতে গিয়ে পুলিশের গুলিতে জামায়াতের কর্মী মমতাজ আহমেদ (৫০) নিহত হন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে পুলিশের একটি সূত্র ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে ডিমলায় যৌথবাহিনীর গুলিতে এক জামায়াত কর্মী নিহত ও দুই পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে।  নিহত জামায়াত কর্মী হলেন, জেলার ডিমলা উপজেলার খালিশা চাপানী ইউনিয়নের ইছামুদ্দিনের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম (৩০)।

জানা যায়, ওই এলাকার খালিশা চাপানী ব্যাপারীটোলা আলিম মাদ্রাসায় রবিবার ভোর রাতে হামলা চালিয়ে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। খবর পেয়ে যৌথ বাহিনী ঘটনাস্থলে পৌছে এলাপাথারী গুলি চালাতে শুরু করে। এ সময় জামায়াতকর্মী গুলিতে ঘটনাস্থলে নিহত হয়।

লালমনিরহাটে আহত যুবদল নেতার মৃত্যু
লালমনিরহাটের পাটগ্রামে আওয়ামী লীগ-বিএনপির সংর্ঘষে আহত যুবদল নেতা ফারুক হোসেন শনিবার রাতে মারা গেছেন।প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গত শনিবার সকালে পাটগ্রাম উপজেলার সফিরহাট এলাকায় আওয়ামী লীগ-বিএনপির সংর্ঘষে স্থানীয় যুবদল নেতা ফারুক হোসেন গুরুত্বর আহত হন। তাকে আশংকাজনক অবস্থায় রংপুর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে হাতীবান্ধা উপজেলার বড়খাতা এলাকায় সাবেক প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মোতাহার হোসেনের লোকজন ফারুককে অ্যাম্বুলেন্স থেকে নামিয়ে নেয়।

পরে স্থানীয় আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে নিয়ে আওয়ামী লীগের লোকজন আবারও তার ওপর হামলা চালায়। প্রায় তিন ঘন্টা পর খবর পেয়ে হাতীবান্ধা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ফারুককে আশংকাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠায়। রাতে চিৎকিসাধীন অবস্থায় ফারুকের মৃত্যু হয় বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে।

ফেনীতে পুলিশের গুলিতে দুই বিএনপি কর্মী নিহত
ভোটকেন্দ্র দখলের সময় জেলার সোনাগাজী উপজেলায় পুলিশের গুলিতে নিহত হয়েছেন বিএনপির দুই কর্মী। অপর দিকে পুলিশসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। নিহত বিএনপি কর্মীর নাম জামশেদ ও শহিদুল্লাহ।
রোববার সকাল ১০টায় উপজেলার চরচান্দিয়ার ভোটগ্রহণ বন্ধ করতে গেলে এ ঘটনা ঘটেছে।
মুন্সীগঞ্জে পুলিশের ধাওয়ায় পুকুরে পড়ে যুবকের মৃত্যু
মুন্সীগঞ্জে একটি ভোটকেন্দ্রে হামলার চেষ্টার সময় পুলিশের ধাওয়ায় পুকুরে পড়ে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।রোববার সকালে ভোটগ্রহণ শুরুর আগ মুহূর্তে উপজেলার দক্ষিণ কাঠাদিয়া-শিমুলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে ইউএনও নাসরীন বলেন, ওই যুবক কেন্দ্রের সামনে একটি পেট্রেলবোমার বিস্ফোরণ ঘটানোর চেষ্টা করে। এ সময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা তাকে ধাওয়া করলে সে পাশের একটি পুকুরে ঝাঁপ দেয়। তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসার পথে তার মৃত্যু হয়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।