নির্বাচনি সহিংসতা বন্ধে কমিশনকে ব্যবস্থা নিতে আ’লীগের আহ্বান

আওয়ামী লীগ।দলটির নির্বাচন পরিচালনা উপ কমিটির আহ্বায়ক মহীউদ্দীন খান আলমগীর রোববার কমিশনে এসে ভোটের দিন বিভিন্ন স্থানে চলমান সহিংসতা বন্ধে নির্বাচন কমিশনকে ব্যবস্থা নিতে লিখিত আবেদন জানান।

নির্বাচন কমিশনার মো. শাহনেওয়াজের সঙ্গে দেখা করার পর সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহীউদ্দীন বলেন, “ভোটের সময় বিভিন্ন কেন্দ্রে যে সহিংসতা হচ্ছে তা বন্ধ করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ করেছি। দলের পক্ষ থেকে ইসিকে এ বিষয়ে দরখাস্ত দেয়া হয়েছে।”এই আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, শীতের কারণে সকালে ভোটার উপস্থিতি কম ছিল। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে উপস্থিতি বাড়ছে।

সহিংসতা বন্ধে কমিশনের উদ্যোগ চাইলেও বিরোধী দলের হরতাল ভোটে কোনো প্রভাব ফেলছে না বলে মন্তব্য করেন তিনি।

বিএনপি নেতৃত্বাধীন বিরোধী দলীয় জোট এই নির্বাচনকে ‘প্রহসন’ আখ্যায়িত করে গত ১ জানুয়ারি থেকে সারা দেশে অবরোধ চালিয়ে আসছে। এর পাশাপাশি ভোট ঠেকাতে শনিবার থেকে ৪৮ ঘণ্টার হরতাল শুরু করেছে তারা।

এই অবরোধ-হরতালের মধ্যে গত শুক্রবার থেকে শতাধিক কেন্দ্রে অগ্নিসংযোগ হয়েছে;  পোড়ানো হয়েছে ব্যালট পেপারসহ নির্বাচনী সরঞ্জাম। ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের ঘটনাও ঘটেছে।

রোববার ভোট শুরুর পরও বিভিন্ন স্থানে ভোটেকেন্দ্র দখলের চেষ্টা ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

যেসব ভোটকেন্দ্র নাশকতায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং ভোট বন্ধ রয়েছে- সে সব কেন্দ্রে দ্রুত বিকল্প ব্যবস্থায় ভোট নেয়ারও আহ্বান জানান মহীউদ্দীন খান আলমগীর।

বিএনপি-জামায়াতের সহিংসতায় গত কয়েক মাসে ৫ শতাধিক  নিহত হয়েছে দাবি করে তিনি বলেন, “দায়ীদের বিচারের আওতায় আনা হবে।”

তবে আবেদনের বিষয়ে ইসির পক্ষ থেকে কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।