কচুয়ায় ছাত্রীর সাথে অসামাজিক কাজ করতে গিয়ে এলাকাবাসীর হাতে স্কুল শিক্ষক আটক॥ এলাকায় উত্তেজনা

কচুয়ায় প্রাইভেট পড়াতে এসে ছাত্রীর সাথে অসামাজিক কাজ করতে গিয়ে এলাকাবাসীর হাতে আটক হলেন উজানী উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক আব্দুল বাছেদ (বায়েজ) বিএসসি । ঘটনাটি ঘটে গত ৭ জানুয়ারী রাত ৮ টায় উজানী কাজী বাড়ীতে।

এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার ৬নং উঃ কচুয়া ইউপির  উজানী উচ্চ বিদ্যালয়ের বিএসসি শিক্ষক বাছেদ স্যার প্রতিদিন রাতে একই বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী হালিমা (ছদ্ম নাম) কে প্রাইভেট পড়াতে ওই বাড়িতে আসে। বিষয়টি এলাকাবাসীর চোখে সন্দেহ জনক হলে তারা নিয়মিত তাহাকে চোখে চোখে রাখে । গত ৭ জানুয়ারী (মঙ্গলবার) রাত ৮ টায় এলাকাবাসী ওই ছাত্রীর সাথে অসামাজিক কাজ করা অবস্থায় তাহাকে হাতে নাতে আটক করে।  পরে বিষয়টি ছড়িয়ে পড়লে এলাকার লোকজন লাঠি ছোটা নিয়ে বাড়ির বাহিরে অপো করতে থাকে। বাড়ীর লোকজন বাছেদ স্যারকে অন্য রাস্তা দিয়ে পার করে দেয়। এলাকার লোকজন অভিযোগ করে বলেন, মোটা অংকের টাকা নিয়ে একটি মহল তাহাকে সরিয়ে দেয়।

অভিভাবকরা জানান, স্কুলের ছাত্ররা যদি ইভটিজিং মামলায় গ্রেফতার হয়ে জেল হাজতে যেতে পারেন তাহলে ছাত্রী ধর্ষনের অপরাধে স্কুলের শিকের বিরুদ্ধে কেন মামলা হবে না।   }

এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি মেম্বার মোঃ ফয়েজ উল্লাহ ও সেলিম মেম্বার ঘটনার সত্যতা স্বিকার করে বলেন, বাছেদ স্যার এর আগেও এ ধরনের অনেক ঘটনা ঘটায়, একটি কুচক্রি মহলের সহযোগিতার কারনে সে বার বার পার পেয়ে যায়। তার কারনে ইতিপূর্বে ওই বিদ্যলায়ের একাধিক হিন্দু ও মুসলিম ছাত্র-ছাত্রী অসামাজিক কাজ করে ভিডিও করে ছড়িয়ে দেয়। তার কারনে বিদ্যলয়ের সু-নাম নষ্ট হচ্ছে। ওই ঘটনায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এলাকাবাসীর সহযোগিতায় বিষয়টি ফয়সালা করে তাদের আটক ও স্কুল থেকে বহিস্কার করে। আমরা প্রশাসনের হস্তপে কামনা করে তার অপসারন চাই। এই ব্যাপারে  বাছেদ স্যারের সাথে যোগাযোগ করেও তার সেলফোনে পাওয়া যায়নি। এই ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।