আজ রাতে কামারুজ্জামানের ফাঁসি: স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

মুহাম্মদ কামারুজ্জামানের ফাঁসি শনিবার রাতে কার্যকর করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। শুক্রবার রাত ১০টার দিকে তিনি সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। অবশ্য এর ঘণ্টা দুয়েক আগে তিনি জানিয়েছিলেন যে কামারুজ্জামান রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষার আবেদন জানাবেন না।

 

তাই তাকে আর সময় দেয়া হবে না। এর আগে শুক্রবার সন্ধ্যায় হঠাৎ করে কামারুজ্জমানের ফাঁসি কার্যকরের প্রক্রিয়া শুরু হয়। সন্ধ্যার দিকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনের যে রাস্তাটিতে যান চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়। পরে রাত ৯টার দিকে কারা সিভিল সার্জন আহসান হাবীব ও লালবাগ জোনের এডিসি মফিজ উদ্দিন আহমেদ কারাগার থেকে বেরিয়ে যান।

 

তার কিছুক্ষণ পর কারাগার থেকে বের হন সিনিয়র জেল সুপার ফরমান আলীও। এ সময় সাংবাদিকরা তাকে প্রশ্ন করেন আজ রায় কার্যকর হচ্ছে কি না। ফরমান আলী এর সুস্পষ্ট কোনো জবাব দেননি। তবে এর আগে সন্ধ্যার পর থেকে ফাঁসির রায় কার্যকরের চূড়ান্ত প্রক্রিয়ার তৎপরতা দেখা যায় কারাগারের সামনে। একে একে কারাগারের ভেতেরে যান কারা চিকিৎসক আহসান হাবীব, লালবাগ জোনের এডিসি মফিজ উদ্দিন আহমেদ, ফরমান আলী।

 

কারা কর্তৃপক্ষের রায় কার্যকরের নানা আনুষ্ঠানিকতার শুরুর পর সেখানে ভিড় জমান গণমাধ্যমকর্মীরা। নাম প্রকাশ না করার শর্তে কারা কর্মকর্তারা জানিয়েছিল যে শুক্রবার রাতেই ফাঁসি কার্যকর করা হতে পারে। তবে মোটামুটি রাত সাড়ে ৯টার দিকে ফরমান আলীর বের হয়ে যাওয়ার পর থেকেই দৃশ্যপটে পরিবর্তনের আঁচ পাওয়া যাচ্ছে।

 

শুক্রবার সকাল ৯টা ৫০ মিনিটে কামারুজ্জামানের সঙ্গে দেখা করতে কারাগারে প্রবেশ করেন জ্যেষ্ঠ ম্যাজিস্ট্রেট মাহবুব জামিল ও তানভীর আজিম। বেলা ১১টা ৪০ মিনিটের দিকে তারা কারাগার থেকে বের হয়ে জিপ গাড়িতে উঠে চলে যান। তারপরই স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেছিলেন, তিনি (কামারুজ্জামান) কিছুটা সময় চেয়েছেন। তবে তাকে দ্রুত সিদ্ধান্ত জানাতে বলা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।