দ্বিতীয় স্ত্রী'র চাহিদা পুরনে ব্যর্থ হওয়ায় ছেলে-মেয়েকে কুপিয়ে জখম - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

দ্বিতীয় স্ত্রী’র চাহিদা পুরনে ব্যর্থ হওয়ায় ছেলে-মেয়েকে কুপিয়ে জখম



তাবারক হোসেন আজাদ, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে-অসুস্থ্য-দ্বিতীয় স্ত্রী’র চাহিদা পুরনে ব্যর্থ হওয়ায় ছেলে ও বিবাহিত মেয়েকে মারধর ও কুপিয়ে জখম করেছেন পিতা। আহতবস্তায় তাদের উদ্ধার রায়পুর সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেছেন এলাকাবাসী।


ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার দুপুরে (৬ আগষ্ট) উপজেলার রায়পুর ইউপির দেবিপুর গ্রামে। এঘটনায় বিকালে আহত রাবেয়া আক্তার রিনা বাদী হয়ে তার পিতা তছলিম দেওয়ান ও সৎ বোন খাদিজা আক্তার শান্তার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেছেন।


হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রাবেয়া বলেন, দেড় বছর বয়সে এক ভাই ও এক বোনকে রেখে তাদের মা মারা যান। তার বিয়ে হয় সিলেটের মৌলুভিবাজারের বাসিন্দা এক প্রবাসী ব্যবসায়ীর সঙ্গে তার বিয়ে হয়। ছোট ভাই দিন মজুর। তাদের পিতা আবার দ্বিতীয় বিয়ে করেন এবং তিনি একাই সব সম্পদ ভোগ করছেন। পরে এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিরা সৎ মা’কে ৩১ শতাংশ ও তাদের দুই ভাই-বোনকে ২০ শতাংশ জমি ভাগ করে দিলে তারা সেখানে বসতঘর করে বসবাস করছিলেন।  ২০১৬ সালে তাদের অসুস্থ্য সৎ মা তার নীজের পিতার বাড়ী চলে গিয়ে বসবাস করছেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে তাদের পিতা হঠাৎ করে বলেন, সৎ মা’র শেষ ইচ্ছানুযায়ী ঘরের আলমারিটা দিতে ছেলেকে নির্দেশ দেন। এতে উভয়ের মধ্যে বাকবিন্ডার এক পর্যায়ে পিতা ও সৎ বোনের লাঠি-ছুড়ির আঘাতে জখম হয়েছেন তারা ভাই ও বোন।


এঘটনায় অভিযুক্ত তছলিম দেওয়ান মোবাইল ফোনে বলেন, আমি তাদের এক দুর্ভাগা পিতা। দ্বিতীয় বিয়ে করার পর সংসারে অশান্তি নরমে এসেছে। ছেলে-মেয়ে দু’জনই আমার অবাধ্য। সামন্য ঘটনা নিয়ে আমার রীরে আঘাত করে।।


রায়পুর থানার ওসি আবদুল জলিল বলেন, রক্তাক্তবস্তায় রাবেয়া ও তার ভাই অভিযোগ দিয়েছেন। তাদের হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। লিখিত অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


এ সম্পর্কিত আরো খবর

উপজেলা এর অন্যান্য খবরসমূহ
জেলা এর অন্যান্য খবরসমূহ
রায়পুর এর অন্যান্য খবরসমূহ
লক্ষীপুর এর অন্যান্য খবরসমূহ
লক্ষ্মীপুর এর অন্যান্য খবরসমূহ
পূর্বের সংবাদ