লাকসামে ১৪’শ৪০ পিচ ইয়াবাসহ আটক ১

কুমিল্লার লাকসামে ১৪’শ ৪০ পিচ ইয়াবাসহ এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার বিকেলে পৌরশহরের ৪নং ওয়ার্ডে আউয়াল টাওয়ার থেকে মাসুদ আলম (৩৮) নামে এক ব্যাক্তিকে ইয়াবাসহ আটক করা হয়।


পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে লাকসাম থানার এসআই গোবিন্দ কুমার শর্মা নেতৃত্বে ওইদিন পৌরশহরে ৪নং ওয়ার্ডে আউয়াল টাওয়ার ২য় তলা অভিযান চালিয়ে ১৪’শ ৪০ পিচ ইয়াবাসহ মাসুদ আলম আটক করে। সে লক্ষীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলার হানুবাইস গ্রামে মৃত আমিনুল উল্লাহর ছেলে। গত কয়েক মাস ধরে লাকসাম পৌরশহরে আউয়াল টাওয়ারে ২য় তলা ভাড়া বাসায় পরিবার নিয়ে বসবাস করেন।
এ ব্যাপারে লাকসাম থানা ওসি নিজাম উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

জ্বীনের রাণী সহ পিতা-পুত্র গ্রেফতার

ঝালকাঠির রাজাপুরে জ্বীনের ভয় দেখিয়ে ৪ লাখ ২০ হাজার টাকা ও সাড়ে ১১ ভরি সোনা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগের মামলায় মেয়ে জ্বীনের রাণী আসিয়া খাতুন ও তার পিতা মন্নাফ সিকদার এবং ভাই কাওসার সিকদারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।


শুক্রবার বিকেলে গ্রেফতারকৃতদের ঝালকাঠি আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। রাজাপুর উপজেলার মনোহরপুর গ্রামের সাবেক স্কুল শিক্ষক মৃত মোকসেদ আলীর স্ত্রী আম্বিয়া খাতুন বাদি হয়ে ৫ জনের নামে বৃহস্পতিবার রাতে রাজাপুর থানায় এ মামলা করলে পুলিশ রাতেই ৩ আসামীকে গ্রেফতার করে। অপর আসামী ফরিদ সিকদার ও ইব্রাহিমকেও জ্বীনের রাণী আসিয়া খাতুনের ভাই।


মামলা সূত্রে জানা গেছে, মামলার ১ নম্বর আসামী আসিয়া খাতুন নিজেকে কোরআনের হাফেজ দাবি করে বাবা মন্নাফের বাড়িতে এলাকার মহিলাদের নিয়ে কয়েক বছর ধরে তালিমের মাধ্যমে কোরআন শিক্ষাসহ বিভিন্ন হাদিসের মাধ্যমে ইসলামের দাওয়াত প্রচার করে এবং মাঝে মধ্যে তাহার কাছে জ্বীনের কথা বলে বিশ্বাস স্থাপন করে নানা অযুহাতে টাকা ও সোনার হাতিয়ে নিতে শুরু করে। পরবর্তীতে জ্বীনের ভয় দেখিয়েও টাকা ও সোনা হানিয়ে নেয়। মামলার বাদি আম্বিয়া খাতুনকে বিভিন্নভাবে জ্বীনের ভয়ভীতি দেখিয়ে প্রতারনার মাধ্যমে বিভিন্ন সময় জ্বীনের রাণী হিসেবে এলাকায় পরিচিত আসিয়া খাতুন ৪ লাখ ২০ হাজার টাকা এবং সাড়ে ১১ ভরি সোনার গহনা হানিয়ে নেয়। ভুক্তভোগী আম্বিয়া খাতুনের ছেলে অভিেেযাগ করে জানান. তার মা আম্বিয়া খাতুন সহজ সরল হওয়ায় বিভিন্নভাবে জ্বীনের ভয়ভীতি দেখিয়ে প্রতারনার মাধ্যমে আসামী আসিয়া খাতুন ৪ লাখ ২০ হাজার টাকা এবং সাড়ে ১১ ভরি সোনার গহনা হানিয়ে নেয়।


এছাড়া আসামীরা বাদিপক্ষের পরিবারের লোকজনকে জ্বীনের মাধ্যমে পাগল করিয়া রাস্তায় ঘুরাইবে বলে এবং খুন জখমের হুমকি দেয়। এভাবে এলাকার বিভিন্ন লোকজনের কাছ থেকে টাকা ও সোনার গহন হাতিয়ে নিয়েছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। কিন্তু জ্বীনের ভয়ে কেহই মুখ খুলছেন না। তবে জ্বীনের রাণী আসিয়া খাতুনের ভাই মামলার ৪ নম্বর আসামী মামলায় অভিযুক্ত ফরিদ সিকদার দাবি করেন জানান, প্রতিপক্ষের কাছ থেকে সুদে নেয়া ২০ হাজার টাকা লাভসহ ফেরৎ দেয়া হয়েছে, তালিমে কোরআন না পরানোয় ক্ষিপ্ত হয়ে পূর্ব শক্রতা ও পারিবারিক বিরোধরে জের ধরে মিথ্যা মামলা দিয়ে তার পরিবারের ৫ সদস্যকে হয়রানি করা হচ্ছে। তাদের নামে জ্বীন হাজিরের নামে মিথ্যা অপবাদ দেয়া হচ্ছে। রাজাপুর থানার ওসি জাহিদ হোসেন জানান, মামলার ৩ আসামীকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে এবং বাদি আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

ট্রেনে দুর্বৃত্তদের ছোড়া পাথরে মাথা ফাটল যাত্রীর

পঞ্চগড় থেকে ঢাকাগামী পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ও চিলাহাটি থেকে খুলনাগামী রুপসা এক্সপ্রেস নামের দুটি পৃথক আন্তঃনগর ট্রেনে দুর্বৃত্তদের ছোড়া পাথরে এক যাত্রী গুরুতর আহত ও অপর ট্রেনের জানালা ভেঙে চুরমার হয়ে গেছে। সোমবার ভোররাতে এ ঘটনার পর দুপুরে বগুড়ার সান্তাহার রেলওয়ে থানায় পৃথক দুটি ডায়েরি করা হয়েছে।

রেলওয়ে থানা সূত্র জানায়, পঞ্চগড় থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী পঞ্চগড় এক্সপ্রেস জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে জাফরপুর এলাকায় পৌঁছলে দুর্বৃত্তরা ট্রেনটিতে পাথর নিক্ষেপ করে। এতে ট্রেন যাত্রী ঠিকাদার জহুরুল ইসলাম (৩২) গুরুতর আহত হন। নাটোর স্টেশনে ট্রেনটিকে জরুরি বিরতি দিয়ে আহত জহুরুলকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে নাটোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। আহত ওই যাত্রী দিনাজপুরের মৃত নুরুল আলীর ছেলে।

অপরদিকে একই দিন, একই এলাকায় চিলাহাটি থেকে খুলনাগামী রুপসা এক্সপ্রেসে দুর্বৃত্তদের ছোড়া পাথরে ট্রেনের জানালা ভেঙে যায়। এ ব্যাপারে সান্তাহার রেলওয়ে থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক নজরুল ইসলাম জানান, আন্তঃনগর দুটি ট্রেনে পাথর ছোড়ার খবর শুনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে এবং থানায় পৃথক দুটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।

প্রেসার কুকার বিস্ফোরণে একই পরিবারের চারজন দগ্ধ

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলায় মাংস রান্নার সময় প্রেসার কুকার বিস্ফোরণে দুই বউ ও শাশুড়িসহ একই পরিবারের চারজন দগ্ধ হয়েছেন।

রোববার (২২ ডিসেম্বর) রাত ৭ টার দিকে উপজেলার দক্ষিণ গড্ডিমারী গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দগ্ধরা হলেন- ওই গ্রামের বেলাল হোসেনের স্ত্রী জোবেদা বেগম (৫৫), তার দুই পুত্রবধু মুন্নি খাতুন (৩৫) ও পারুল আক্তার (২৮) এবং নাতি লিমন মিয়ার স্ত্রী হ্যাপি বেগম (২২)।

Lalmonirhat-2

জানা গেছে, লিমন মিয়ার স্ত্রী হ্যাপি বেগম প্রেসার কুকারে মাংস রান্না করছিলেন। তাদের রান্না ঘরে বসে গল্প করছিলেন বউ ও শ্বাশুড়ি। এ সময় প্রেসার কুকারে হঠাৎ বিস্ফোরণ ঘটলে জোবেদা বেগম, মুন্নি খাতুন, পারুল ও হ্যাপি বেগম দগ্ধ হন। স্থানীয়রা পরে তাদের উদ্ধার করে হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

লিমন মিয়া বলেন, আমি বাড়ি বাইরে ছিলাম। হঠাৎ খবর পেয়ে তাদের উদ্ধার করে হাতপাতালে ভর্তি করি। আমার স্ত্রীসহ সবাই সুস্থ আছেন।

হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. আনোয়ারুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আহত চারজনই কিছুটা দগ্ধ হয়েছেন।

লাকসামে বিশ্ব মানবাধিকার দিবস পালিত

কুমিল্লার লাকসামে যথাযোগ্য মর্যাদায় ৭১তম বিশ্ব মানবাধিকার দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে র‌্যালী ও আলোচনা সভার আয়োজন করে বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন বৃহত্তর কুমিল্লা আঞ্চলিক শাখা।


আজ মঙ্গলবার সকালে বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন বৃহত্তর কুমিল্লা আঞ্চলিক শাখা কার্য্যালয় থেকে একটি র‌্যালী বের হয়। র‌্যালীটি লাকসাম বাইপাস সড়ক প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে শেষ হয়। পরে আঞ্চলিক শাখা কার্য্যালয়ে বিশ্ব মানবাধিকার দিবসের তাৎপর্য্য শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।


বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন বৃহত্তর কুমিল্লা আঞ্চলিক শাখার সভাপতি মোঃ মাহমুদুল হাসান রোম্মানের সভাপতিত্বে র‌্যালী ও আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনিছুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক মুরশিদুর রহমান সোহেল, কাজী মাসউদ আলম, নজরুল ইসলাম, মানবাধিকার নেতা আব্দুল আউয়াল, দেলোয়ার হোসেন মনির, সাংবাদিক মোঃ হুমায়ুন কবির মানিক, মোজাম্মেল হক আলম, মাসুদুর রহমান প্রমুখ।

১৬ বছর বয়সী কিশোরীকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গণধর্ষ‌ণ

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় ষোল বছর বয়সী এক কিশোরীকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গণধর্ষ‌ণের অ‌ভি‌যোগ পাওয়া গে‌ছে। এই ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ ছয় বখাটেকে গ্রেফতার করেছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে নারায়ণগঞ্জের ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মনিরুল ইসলাম।

সোমবার (৯ ডি‌সেম্বর) সন্ধ্যায় সদর উপজেলার ফতুল্লা থানার বটতলা এলাকায় শাহাজালাল রো‌লিং মিল সংলগ্ন মস‌জি‌দ গ‌লি‌তে এ গণধর্ষণের ঘটনা ঘ‌টে।

এ‌ ঘটনায় জড়িত অভিযোগে ফতুল্লা ম‌ডেল থানা পু‌লিশ রাতেই অ‌ভিযুক্ত রাসেল, আলামীন, রবিন সুমন, শাহাদাত হোসেন, ও সুজন।

ফতুল্লা ম‌ডেল থানা পু‌লি‌শের ইন্সপেক্টর তদন্ত ‌মিজানুর রহমান জানান, ভিকটিম ক‌য়েল কারখানায় শ্র‌মি‌কের কাজ ক‌রে। সে সদর থানার গোগনগর ইউনিয়নের ফকিরবাড়ি এলাকায় ভাড়া বাসায় বসবাস করে।

ফতুল্লা ম‌ডেল থানা পু‌লি‌শের ইন্সপেক্টর তদন্ত ‌মিজানুর রহমান জানান, সোমবার সন্ধ্য‌ায় কারখানায় কাজ শেষে ছু‌টির পর মা‌লি‌কের সা‌থে বা‌ড়ি ফেরার প‌থে তা‌দের পথরোধ ক‌রে এলাকার বখাটে যুবক রা‌সেল ও তার তিন সহ‌যোগী যুবক। প‌রে সন্ত্রাসী আলামীন কয়েল কারখানার মালিককে মারধর ক‌রে সেখান থেকে তা‌ড়ি‌য়ে দি‌য়ে ওই কিশোরীকে র‌বিন ও সুম‌নের হা‌তে টাকার বি‌নিম‌য়ে তু‌লে দেয়। এরপর তিনজন মিলে ওই কিশোরীকে এক‌টি নির্জন বা‌ড়ি‌তে নি‌য়ে সংঘবদ্ধভাবে ধর্ষণ ক‌রে।

নারায়ণগঞ্জের ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোঃ মনিরুল ইসলাম জানান, মারধ‌রের শিকার ক‌য়েল কারখানার মা‌লিক কা‌দির থানায় বিষয়‌টি জানা‌লে অ‌ভিযান চা‌লি‌য়ে পু‌লিশ অ‌ভিযুক্ত ৬ জনকে আটক ক‌রে‌।

বিএনপি লাকসাম উপজেলা, পৌরসভা ও মনোহরগঞ্জ উপজেলার আহবায়ক কমিটি গঠিত

অবশেষে বহু প্রতীক্ষিত কুমিল্লার লাকসাম উপজেলা, পৌরসভা ও মনোহরগঞ্জ উপজেলা বিএনপি’র আহবায়ক কমিটি অনুমোদিত হয়েছে। অনুমোদিত কমিটিতে নুরুন্নবী চৌধুরীকে লাকসাম উপজেলা, আলহাজ্ব মফিজুর রহমানকে লাকসাম পৌরসভা ও ইউসুফ ভূঁইয়াকে মনোহরগঞ্জ উপজেলা বিএনপি’র আহবায়ক মনোনীত করা হয়।

নিম্মে তিন ইউনিটের আহ্বায়ক কমিটির পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশ করা হলো:


লাকসাম উপজেলা: আহবায়ক নুরুন্নবী চৌধুরী। যুগ্ম-আহবায়ক যথাক্রমে- আব্দুর রহমান বাদল, নূর হোসেন চেয়ারম্যান, শাহ আলম, ইব্রাহীম খলিল, মোস্তাফা কামাল, শাহ আলম চেয়ারম্যান, প্রভাষক আবুল হোসেন, সৈয়দ শহীদ, আহসান উল্লাহ, কাজী আব্দুল রশিদ, আবুল হাসেম সওদাগর, রফিকুল ইসলাম, আবুল কাশেম, সিরাজুল ইসলাম, শহিদ উল্লাহ, নিজাম উদ্দিন, আব্দুল জলিল, সলিম উল্ল্যাহ, আবদুস সালাম। সদস্য সচিব- তাজুল ইসলাম খোকন।


সদস্য যথাক্রমে- কর্ণেল (অবঃ) এম আনোয়ার উল আজিম, মোঃ আবুল কালাম, ড. রশিদ আহমেদ হোসাইনী, মোশারফ হোসেন কাঞ্চন, সাইদুর রহমান সাচ্চু, আবু তাহের, তাজুল ইসলাম, আব্দুল রহিম, এড. নাজমুল হক, সেলিম লালু, এড. ছালেহ আহম্মেদ, ফয়েজ আহম্মেদ বাবুল, আবুল হাসেম চেয়ারম্যান, সৈয়দ শরীফ হোসেন, তরিকুল ইসলাম বাবুল, রাফসানুল ইসলাম, প্রভাষক আবুল কালাম, আনোয়ার হোসেন, মাষ্টার শাহ আলম, সিরাজুল ইসলাম, আবুল কাশেম (ভি,পি), নুরুল আলম খোকন, আব্দুল গফুর, আজহারুল হক খোকা, নুরুন নবী মজুমদার, মোশারফ হোসেন মশু, রুহুল আমিন, মাহাবুবুর রহমান, পান্না আক্তার, খোরশেদ আলম, জাকির হোসেন, শাহীন মজুমদার, মিজানুর রহমান, মোজাম্মেল হক মন্টু, ছায়েদুল হক, বিল্লাল হোসেন, আমান উল্ল্যাহ আমান, মাষ্টার সাইদুর রহমান, মনিরুজ্জামান মনু, টি.আর হারুন, ইছাহাক মেম্বার, তাজুল ইসলাম, ইয়ার খান, হাবিব মেম্বার, রয়েল, আবুল হোসেন, শাহিন মিয়া, হারুন অর রশিদ, মাসুদ রানা, দুলাল, হুমায়ন কবির, বদিউল আলম, আবুল কালাম, আহছান ভেন্ডার, শাহজাহান ভেন্ডার, আবুল কালাম, দুলাল মেম্বার, শাহ আলম, আবু ইউসুফ, মোস্তফা মেম্বার, এমরান হোসেন, রশিদ মেম্বার, ইসমাইল হোসেন, শফিউল্লাহ বারী, লতিফুর রহমান, খসরু, খাজা আহম্মেদ, হারেছ কোম্পানী, মোঃ মমিন, মহিব উল্ল্যাহ, মাস্টার ইয়াছিন, স্বপন, আব্দুল ছাত্তার, গিয়াসউদ্দিন, আব্দুল খালেক, মনির হোসেন, বাশার ওয়াশকরুনি, ছিদ্দিকুর রহমান ছিদ্দিক, মোসলেম উদ্দিন।

লাকসাম পৌরসভা: আহবায়ক- আলহাজ্ব মফিজুর রহমান। যুগ্ন-আহবায়ক- যথাক্রমে আবুল হোসেন মিলন, মো. মনিরুজ্জামান, বেলাল রহমান মজুমদার, মুহাম্মদ নুরনবী, আনোয়ার হোসেন, মঈনুল হক মিঠু, আমির হোসেন, ইয়াসিন আলী, মোস্তফা কামাল, আবদুল্লাহ আল মাহমুদ খসরু, কমিশনার আ. রশিদ, প্রভাষক হুমায়ুন কবির, মঞ্জুরুল আলম বাচ্চু, জামিলুর রহমান সোহেল, মনির আহমেদ, নাহিদুর রহমান বাদল, আহসান হাবিব, মিজানুর রহমান, আবদুল হক । সদস্য সচিব- গোলাম ফারুক।

সদস্য যথাক্রমে কর্ণেল (অব.) এম. আনোয়ারুল আজীম, মো. আবুল কালাম, ডা. মো. নুর উল্লাহ রায়হান, আবুল হাসেম মানু, শাহনাজ আক্তার, ইসমাইল হোসেন, সফিকুর রহমান ভান্ডারী, রমেন্দ্র ভট্টাচার্য, আবদুল খালেক, কামাল হোসেন, মইনুল হোসেন হেলাল রফিকুল ইসলাম খোকন, দেলোয়ার কবিরাজ, ফরিদ উদ্দিন, মোখলেছুর রহমান, লতিফুর রহমান বাদল, মাহমুদুল হাসান, শুকর আলী, আবদুল মান্নান, খোরশেদ আলম, সৈয়দ আলী মিয়া, জিল্লুর রহমান ফারুক, বেলায়েত হোসেন, ইঞ্জি সোলেমান, মাহাবুবুর রহমান মানিক, আবু ইঊসুফ, নুরুল হক, আবু বকর মিল্টন, বাবুল মিয়া, গোলাপ হোসেন, আবদুল মালেক, হায়াতুন্নবী, ছাদেকুল হক , মো. আলী, কামাল হোসেন, শাহজাহান সাজু, রুহুল আমিন, মাসুদ ইকবাল, তাজুল ইসলাম, এড মিজানুর রহমান, আবুল হোসেন কন্টা:, জহিরুল হক, কফিল উদ্দিন, হোসেন মিয়া, আ: রহমান মীর, জাহাঙ্গীর আলম, আলী হোসেন, মো. মিন্টু, আবদুল কাদের, জাকির হোসেন, মো. হারুন, শহিদুর রহমান, আমান উল্লাহ, ফারুক মিয়া, খোরশেদ আলম, লিটন ভুইয়া, জাবের হোসেন কিরন, জালাল আহমেদ, আবদুল মতিন, হেলাল ভেন্ডার, জাকির হোসেন, হিরু মিয়া, আবুল খায়ের, ফেরদৌস আলম, মো. আলী মফু, জমির উদ্দিন, সিরাজ মিয়া, শাহ আলম, হোসেন মিয়া , শাহজাহান, আবুল কালাম, মো: আলী, শওকত আলী, বদিউজ্জামান বাবু, ছানাউল্লাহ মিয়া, ছেরাজুল হক ছেরু, রুহুল আমিন, জসিম উদ্দিন, ইয়াছিন আলী, শহীদ মিয়া ।

মনোহরগঞ্জ উপজেলা: আহবায়ক- ইউসুফ ভুইয়া। যুগ্ন-আহবায়ক যথাক্রমে- মো. শরীফ হোসেন, প্রভাষক আলী মুর্তজা, কাজী আবুল বাশার, এস এম মনসুর, শহীদ চেয়ারম্যান, মতিন চেয়ারম্যান, আ: হাই চেয়ারম্যান, মঞ্জুরুল আলম মজনু, আ: মুনাফ, আবুল কালাম, এড. নুরুল আলম, শওকত হোসেন শিহাব, জাফর ইকবাল বাচ্চু, মো, কবির। সদস্য সচিব- সরওয়ার জাহান দোলন।
সদস্য যথাক্রমে কর্ণেল (অব.) এম. আনোয়ারুল আজমি, মো. আবুল কালাম, মোবারক উল্লাহ মজুমদার, সফিকুর রহমান, আবুল বাশার কমান্ডার, আ: মান্নান চেয়ারম্যান, শাহ সুলতান খোকন, আবুল বাশার, জহিরুল আলম ভুইয়া, মো. আলী চেয়ারম্যান, বেলায়েত হোসেন, মৌ: সুলতান আহমেদ, মোবারক হোসেন চেয়ারম্যান, হাজী জাহাংগীর আলম,প্রভাষক জাহাঙ্গীর আলম, ইউসুফ হারুন, নুর আহমেদ, আবুল কাশেম, দেওয়ান সামছুল হক, মাহবুবুল হক ভুইয়া, মাষ্টার সোলাইমান, এটিএম সামছুল হক, ইঞ্জি: সালেহ, আবু বকর ছিদ্দিক, খবির উদ্দিন, ফজলুর রহমান, আহম্মেদ মিয়া, শহীদ উল্লাহ মিজি, কলিম উল্লাহ, আজাজ আহমেদ, হারুনুর রশিদ, ডা. লোকমান হোসেন, শাহজাহান ভুইয়া, শাহাদাত হোসেন , অজি উল্লাহ, মহিব উল্লাহ সাহিন, মোশারফ হোসেন বিএসসি, জহিরুল ইসলাম, গিয়াস উদ্দিন সৈকত, মাসুদুল আলম বাচ্চু, আনিসুর রহমান পাটওয়ারী, সলিম উল্লাঞ, আবদুস সামাদ সরকার, দেওয়ান জাহাংাগীর, মোকতার বাসেত, মাকসুদুর রহমান টিপু, বিল্লাল হোসেন, আবুল খায়ের, সফিকুল মাইজা, মহিব উল্লাহ মিলন, শেখ কামাল, ফখর উদ্দিন, অহিদুল হক, ছিদ্দিকুর রহমান, জাহাংগীর আলম, গিয়াস উদ্দিন মিন্টু, আলম মেম্বার, ইঞ্জিনিয়ার মর্তুজা ভূইয়া, আবুল কাশেম, প্রভাষক শরিফুল মানিক, আবুল বাশার, মাস্টার সরোয়ার, সমচুল হল বাবুল, ফরুকুল ইসলাম, হাফেজ ওমর ফারুক, মোবারক হোসেন, হারুনুর রশিদ, ওসমান গনি, নুরুল ইসলাম মিন্টু, হেলাল উদ্দীন, আহসান হাবিব, আবু বকর ছিদ্দিক, জহিরুল মুন্সি, খন্দকার ফারুক, মোস্তফা মেম্বার, ইমাম হোসেন, আনোয়ার হোসেন, আব্দুল বাতেন, প্রভাষক আবুতাহের, ডা. মজিদ, শাহ আলম, আবুল খায়ের, আব্দুল মান্নান, হাসেম মাস্টার, আলী আকগর, নাজির মেম্বার, আবুল কালাম আজাদ, আবু সুফিয়ান পারভেজ, আবু মোসা মোল্লা, জহিরুল ইসলাম, কুদ্দুস হেলালী, শাহ আলম পাটোয়ারী, মোজাম্মেল হোসেন, আলমগীর হোসেন, আনোয়ার হোসেন, আব্দুল্লাহ মামুন চৌধুরী, তোফাজ্জল হোসেন, মাহবুব পাটোয়ারী, ইসমাইল হোসেন, শফিকুর রহমান আক্কাচ, মোবারক হোসেন, আনোয়ারুল আমিন, জামাল হোসেন, মোকলেছ মিয়া।

শিল্প মন্ত্রণালয় ও বিসিক কর্মকর্তাদের ৫ দিনব্যাপী ক্রয় বিধি সংক্রান্ত প্রশিক্ষণ সম্পন্ন

রাজধানীতে শেষ হল শিল্প মন্ত্রণালয় ও ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের প্রিজম প্রকল্পের আয়োজনে ৫ দিনব্যাপী “Public Procurement Procedures and Rules – ক্রয় এবং বিধি” শীর্ষক ৫ দিনব্যাপী এক প্রশিক্ষণ কর্মশালা। রাজধানীর পুরানো পল্টনের ইকোনমিক রিপোটার্স ফোরাম ইআরএফ মিলনায়তনে এ প্রশিক্ষণে শিল্প মন্ত্রণালয় এবং বিসিকের ২৩ জন প্রকল্প পরিচালক ও কর্মকর্তা অংশগ্রহণ করেন। শনিবার বিকেলে প্রশিক্ষণ কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।


মূলত সরকারী ক্রয় কার্যক্রমের সাথে যুক্ত সংশ্লিল্ট কর্মকর্তাদের দক্ষতা বৃদ্ধি করার জন্য এ প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয়। এতে ক্রয় বিধি, অর্থায়নসহ বিভিন্ন কারিগরি বিষয় শেখানো হয় যাতে কর্মকর্তারা দক্ষতা এবং সচ্ছতার সাথে ক্রয় প্রক্রিয়ায় যুক্ত হতে পারেন।


সেন্ট্রাল প্রকিউরমেন্ট টেকনিক্যাল ইউনিটের প্রশিক্ষক জাকির হোসেন ৫ দিনের এ প্রশিক্ষণ পরিচালনা করেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শিল্প মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহাম্মদ আবদুল হালিম, বিসিকের চেয়ারম্যান মোঃ মোশ্তাক হাসান, শিল্প মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম প্রধান ডাঃ মোঃ আখতারুজ্জামান, প্রিজম প্রকল্পের টিম লিডার আলী সাবেতসহ শিল্প মন্ত্রণালয়, বিসিক এবং প্রিজম প্রকল্পের কর্মকর্তারা।


অন্যদিকে এসএমই ফাউন্ডেশন ও ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের প্রিজম প্রকল্পের আয়োজনে শনিবার সকালে খুলনায় শুরু হয় এসএমই পণ্যের জন্য ডিজিটাল মার্কেটিং শীর্ষক ৩ দিনব্যাপী এক প্রশিক্ষণ কোর্স। নগরীর শের-ই-বাংলা রোডের কম্পিউটার কাউন্সিলে এ প্রশিক্ষণ কোর্সের আয়োজন করা হয়েছে।


এ প্রশিক্ষণে ২০ জন উদ্যোক্তাকে বিনামূল্যে ই- মার্কেটিং এবং ডিজিটাল মার্কেটিং প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। যেসব উদ্যোক্তার ফেসবুক, অনলাইন এবং ওয়েবে এসএমই পণ্যের পেইজ আছে, তাদের জন্য এ প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয়েছে। ৯ ডিসেম্বর প্রশিক্ষণ শেষে অংশগ্রহণকারীদের হাতে সনদপত্র তুলে দেয়া হবে।

পবার হরিয়ান ইউনিয়ন বিএনপি’র কর্মী সভা

রাজশাহীর পবার হরিয়ান ইউনিয়ন বিএনপি’র আহ্বায়ক কমিটি গঠনের লক্ষে কর্মী সভা অনুষ্ঠিত হয়।


মঙ্গলবার বিকেল ৪ টায় অত্র ইউনিয়ন সংলগ্ন স্থানে কর্মী সভায় সভাপতিত্ব করেন হরিয়ান ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি আব্দুর রহমান।


প্রধান অতিথি ছিলেন পবা উপজেলা বিএনপি’র আহ্বায়ক সেলিম রেজা বাচ্চু। বিশেষ অতিথি ছিলেন রাজশাহী জেলা বিএনপি’র সদস্য সৈয়দ মহসিন আলী, আহবায়ক কমিটির সদস্য ও নওহাটা পৌর মেয়র আলহাজ্ব শেখ মোহাম্মদ মোকবুল হোসেন, জেলা যুবদলের সাবেক আহবায়ক আনোয়ার হোসেন উজ্জ্বল, কৃষকদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য পিন্টু, জেলা বিএনপি’র আহবায়ক কমিটির সদস্য শাজাহান আলী, আব্দুর রাজ্জাক ও মহানগর বিএনপি’র দপ্তর সম্পাদক নাজমুল হক ডিকেন।


এছাড়াও পবা উপজেলা বিএনপি’র যুগ্ম আহŸায়ক নজরুল ইসলাম নজু, আলমগীর হোসেন, রজব আলী, বাদশা মিয়া, আলম আলী ও আবুল কালাম আজাদ, জেলা যুবদলের সহ-সভাপতি সুলতান আহম্মেদ, পবা উপজেলা যুবদলে আহবায়ক আকতারুজ্জামান, শরিফুল ইসলাম, মহানগর ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রবি ও জেলা ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম জনিসহ হরিয়ান ইউনিয়ন বিএনপি ওয়ার্ড নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। কর্মী সভায় হরিয়ান ইউনিয়ন বিএনপি’র কমিটি বিলুপ্ত করে আহŸায়ক কমিটি গঠণের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

উত্তরবঙ্গের ১৬ জেলায় তেল সরবরাহ বন্ধ

১৫ দফা দাবিতে বাংলাদেশ পেট্রলপাম্প ও ট্যাংক-লরি মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের ডাকা ধর্মঘটের দ্বিতীয় দিন আজ সোমবার অচল হয়ে পড়েছে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলায় বাঘাবাড়ির বিপিসির তেল ডিপো।

সকাল থেকে পেট্রলপাম্প ও ট্যাংক-লরি মালিকরা কোনো প্রকার জ্বালানি তেল উত্তোলন এবং উত্তরবঙ্গের রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের ১৬ জেলায় সরবরাহ করেনি। ফলে বিপিসির বাঘাবাড়ি ওয়েল ডিপোটি কর্মহীন হয়ে অচল হয়ে পড়েছে।

এর আগে রোববার সকাল ৬টা থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতি কর্মসূচি শুরু করে বাংলাদেশ পেট্রলপাম্প ও ট্যাংক-লরি মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ।

রাজশাহী পেট্রলপাম্প ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অজেল উদ্দিন জানান, তারা দীর্ঘদিন ধরে সরকারের কাছে তেলের কমিশন বৃদ্ধি, মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধ, ট্যাংক-লরি শ্রমিকদের বীমাপ্রথা চালু, পরিবেশ অধিদফতরের লাইসেন্স বাতিল, বিএসটিআইয়ের বার্ষিক ট্যাক্স বাতিল, ট্যাংক-লরি চালকদের পুলিশি হয়রানি বন্ধসহ ১৫ দফা বাস্তবায়নের দাবি জানিয়ে আসছে।

তিনি বলেন, আমাদের এ ন্যায্য দাবি দীর্ঘদিনেও পূরণ না হওয়ায় পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী সকাল থেকে জ্বালানি তেল উত্তোলন, সরবরাহ ও বিপণন বন্ধ রেখে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি কর্মসূচি পালন করছি। সরকার আমাদের এ দাবি বাস্তবায়ন করলেই আমরা কর্মসূচি প্রত্যাহার করে কাজে ফিরে যাব।

বাঘাবাড়ি ট্যাংক-লরি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মোজাম্মেল হক জানান, উত্তরাঞ্চলের রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের ১৬ জেলা থেকে সারা দেশে প্রায় ১০ হাজার যানবাহন চলাচল করে থাকে। এসব পরিবহনের জন্য প্রতিদিন প্রায় ১০ লাখ লিটার পেট্রলের প্রয়োজন হয়।

এ পরিমাণ জ্বালানি তেলের সিংহভাগ বিপিসির বাঘাবাড়ি ওয়েল ডিপো থেকে সরবরাহ করা হয়। আর এ তেল সরবরাহের কাজে নিয়োজিত রয়েছে প্রায় ৮০০ ট্যাংক-লরি ও দুই শতাধিক পেট্রলপাম্প।

এ ছাড়া পার্বতীপুর, বালাসিঘাট ও চিলমারী থেকে চাহিদার মাত্র ১০ শতাংশ তেল সরবরাহ করা হয়। আমাদের দাবি আদায়ে উত্তরের সব ডিপো থেকে সব ধরনের জ্বালানি তেল উত্তোলন ও সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। এ ছাড়া সব ট্যাংক-লরি ও পেট্রলপাম্পে জ্বালানি তেল বিপণন বন্ধ রয়েছে। এ দাবি বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত এ গুলো বন্ধ থাকবে।

এ বিষয়ে বাঘাবাড়ি ওয়েল ডিপোর ইনচার্জ ও যমুনা ওয়েল কোংয়ের ব্যবস্থাপক জাহিদ সরোয়ার বলেন, বাংলাদেশ পেট্রলপাম্প ও ট্যাংক-লরি মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের ১৫ দফা দাবিতে কর্মবিরতি কর্মসূচির প্রথম দিনে বাঘাবাড়িসহ উত্তরের সব ডিপো খোলা রয়েছে। কিন্তু কোনো ডিলার বা পাম্প মালিক এ দিন তেল উত্তোলন করতে আসেনি। ফলে ডিপোতে কোনো কাজ হয়নি।

তবে সব পেট্রলপাম্প মালিক ও ডিলারদের কাছে পর্যাপ্ত পরিমাণ জ্বালানি তেল মজুদ রয়েছে। ফলে উত্তরাঞ্চলের কোথাও এদিন এর কোনো প্রভাব পড়েনি। এ কর্মবিরতি দীর্ঘ হলে এক সপ্তাহ পর এর প্রভাব পড়তে পারে।

এ বিষয়ে পরিবহন মালিক আবদুস সবুর ও বাদল খন্দকার জানান, এ দিন তাদের ট্যাংকিতে ফুল তেল থাকায় তারা ভালোভাবেই গাড়ি চালাতে পেরেছেন। আগামী দিনেও পেট্রলপাম্প বন্ধ থাকলে তারা আর গাড়ি চালাতে পারবেন না।

এদিকে খুচরা বিক্রেতা আব্দুল আলিম জানান, সরবরাহ না থাকায় খুচরাবাজারে পেট্রলের দাম লিটারে ৫ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে।

এ বিষয়ে মোটর বাইকচালক আবদুল কুদ্দস, রাজিব আহমেদ জাকির হোসেন জানান, পেট্রলপাম্প বন্ধের কারণে খুচরা বিক্রেতারা লিটারপ্রতি ৫ টাকা বেশি দরে বিক্রি করছে। কোথাও কোথাও সরবরাহ না থাকার অজুহাতে পেট্রলের কৃত্রিম সংকটও দেখা দিয়েছে।

গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ প্রকল্প-কর্মীদের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ

আজ ৩০ নভেম্বর ২০১৯ রোজ শনিবার সকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে চাঁদপুরের স্থানীয় সরকার উপপরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ শওকত ওসমান, উপসচিব মহোদয়ের বিদায় সংবর্ধনা উপলক্ষ্যে এক বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচির (ইউএনডিপি) সহায়তায় স্থানীয় সরকার বিভাগ কর্তৃক পরিচালিত বাংলাদেশে গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ (২য় পর্যায়) প্রকল্প -এর আওতায় চাঁদপুরে কর্মরত জেলা ও উপজেলা কর্মকর্তাগণ এবং ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম আদালত সহকারীবৃন্দ যৌথভাবে এ অনুষ্ঠান আয়োজনের মাধ্যমে তাদের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

অনুষ্ঠানের মধ্যমনি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিদায়ী স্থানীয় সরকার উপপরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ শওকত ওসমান। এতে সভাপতিত্ব করেন জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচির (ইউএনডিপি) চাঁদপুর জেলা প্রতিনিধি ডিস্ট্রিক্ট ফ্যাসিলিটেটর (ডিএফ) নিকোলাস বিশ্বাস। অনুষ্ঠানে প্রকল্পের সহযোগী সংস্থা তথা ব্লাস্ট’-এর জেলা সমন্বয়কারী মোঃ আমিনুর রহমান, উপজেলা সমন্বয়কারীবৃন্দ মোঃ সগীর আহম্মেদ ও মোঃ সিদ্দিক আলী সহ প্রকল্পাধীন ৪৪ ইউনিয়নের সকল গ্রাম আদালত সহকারীবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

বিদায়ী স্থানীয় সরকার উপপরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ শওকত ওসমান বলেন, সরকারের নিয়ম অনুযায়ী আমাদের সবাইকে বদলী হতে হয়। এটা আমাদের চাকরী জীবনের একটি নিয়মিত অংশ। চাঁদপুরে আমি দুই বছর দুই মাস কর্মরত ছিলাম। এ সময়ে আমি আপনাদের সাথে কাজ করতে পেরে খুবই আনন্দিত। মাঠ পর্যায়ে প্রকল্পের বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করতে পেরে আমি অনেক কিছু শিখতেও পেরেছি। আসলে দেশের উন্নয়নের জন্য আমাদের একযোগে কাজ করতে হবে। এখন দেশের প্রশাসন জনবান্ধব। জনগণের কল্যাণে জেলা ও উপজেলা প্রশাসন সর্বদা কাজ করে যাচ্ছে। দেশ ও দশের সেবা করতে পারলে সত্যিই আনন্দ পাওয়া যায়।

জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচির (ইউএনডিপি) জেলা প্রতিনিধি (ডিস্ট্রিক্ট ফ্যাসিলিটেটর) নিকোলাস বিশ্বাস বিদায়ী উপসচিব মোহাম্মদ শওকত ওসমান মহোদয়ের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনার সঙ্গে কাজ করতে পেরে আমরাও কৃতজ্ঞ। যখনই কোন সহযোগীতার জন্য আমরা আপনার কাছে গিয়েছি তখনই সহযোগিতা পেয়েছি। আপনার মধ্যে আমরা কোন বিরক্তির ভাব লক্ষ্য করিনি। গ্রাম আদালত সক্রিয়করণে আপনার নেতৃত্ব ও পরামর্শ আমাদের জন্য অনেক সহায়ক ছিল। কাজের প্রতি আপনার একাগ্রতা ও ধৈর্য্য আমাদের দারুনভাবে উৎসাহিত করেছে। এখানে উপস্থিত গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ প্রকল্পের সকল কর্মকর্তা ও গ্রাম আদালত সহকারীদের পক্ষ থেকে আপনার প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। পাশাপাশি নতুন কর্মস্থলে আপনার সুস্বাস্থ্য ও উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করি।

চাঁদপুরে ২০১৭ সাল হতে গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ প্রকল্পটি কাজ করছে। জেলা প্রশাসক মহোদয়ের সার্বিক নির্দেশনায় স্থানীয় সরকার উপপরিচালক প্রকল্পটি পরিচালনা করেন। প্রকল্পটি মাঠ পর্যায়ে বাস্তবায়নে তাকে সহযোগিতা করেন জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচিÕর (ইউএনডিপি) একজন জেলা প্রতিনিধি যিনি ডিস্ট্রিক্ট ফ্যাসিলিটেটর হিসেবে কাজ করেন। এছাড়াও মাঠ পর্যায়ে প্রকল্পটি সরাসরি বাস্তবায়নে সরকারের পাশাপাশি কাজ করছে সহযোগী সংস্থা ব্লাস্ট। জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে ব্লাস্টের কর্মীবৃন্দ রয়েছে।

২০১৭ হতে এ পর্যন্ত চাঁদপুরে মোট ৪ জন স্থানীয় সরকার উপপরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) হিসেবে কাজ করেছেন। এদের মধ্যে সবচেয়ে বেশী সময় ধরে কাজ করেছেন মোহাম্মদ শওকত ওসমান, উপসচিব। তিনি ২৫তম ব্যাচের (বিসিএস) একজন কর্মকর্তা। ২০১৭ সালের ১৫ অক্টোবর তিনি অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হিসেবে চাঁদপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে যোগদান করেন। এরপর ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে তিনি স্থানীয় সরকার জেলা শাখায় উপপরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) হিসেবে দায়িত্বপ্রাপ্ত হন। এখানে কাজ করার সময়ই তিনি সরকারের উপসচিব পদে উন্নীত হন। সম্প্রতি মন্ত্রণালয় থেকে তার বদলীর আদেশ আসে এবং সে মোতাবেক তাকে কুমিল্লায় পূর্ণকালীন স্থানীয় সরকার উপপরিচালক হিসেবে বদলী করা হয়। শীঘ্রই মোহাম্মদ শওকত ওসমান তার নতুন কর্মস্থলে যোগদান করবেন।

অনুষ্ঠানে বিদায়ী স্থানীয় সরকার উপপরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ শওকত ওসমান, উপসচিব মহোদয়কে বাংলাদেশে গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ (২য় পর্যায়) প্রকল্পÓ চাঁদপুর -এর পক্ষ থেকে ধন্যবাদ ও কৃজ্ঞতা প্রকাশস্বরূপ ক্রেষ্ট ও উপহার প্রদান করা হয়।

সাংবাদিক প্রশিক্ষণ কর্মশালায় সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি দায়িত্বশীল সাংবাদিকরাই পারে সমাজকে বদলে দিতে

সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল বলেছেন, সাংবাদিকদের ব্যাতিক্রমী চিন্তা চিতনার মনোভাব থাকতে হবে। দায়িত্বশীল সাংবাদিকরাই পারে সমাজকে বদলে দিতে। শুক্রবার বিকেলে দিটুডে নিউজ (টিটিএন) আয়োজিত ২মাস ব্যাপি সাংবাদিক প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। প্রশিক্ষনার্থীদের উদ্দেশ্যে এমপি কমল বলেন, সাংবাদিকতা মহৎ একটি পেশা। কারো বিরোধিতা বা অপপ্রচারের জন্য সাংবাদিকতা নয়। যা সত্য ও বস্তুনিষ্ঠ তাই লিখতে হবে। রাষ্ট্রের ক্ষতি হয় এমন কোন সংবাদ পরিবেশন করা থেকে সাংবাদিকদের বিরত থাকতে হবে বলে জানান প্রধান অতিথি। আলোচনা সভা শেষে এমপি কমল কর্মশালায় আন্তর্জাতিক রাজনীতি নিয়ে সাংবাদিকদের ভ‚মিকা বিষয়ে ঘন্টাব্যাপী আলোচনা করেন।


আলোচনা সভায় দিটুডে নিউজ এর প্রধান সম্পাদক জাহেদ সরওয়ার সোহেলের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মোহাম্মদ শাজাহান আলি, প্রবীণ সাংবাদিক প্রিয়তোষ পাল পিন্টু, এ্যাডভোকেট আয়াছুর রহমান, দৈনিক কক্সবাজারের পরিচালনা সম্পাদক মোহাম্মদ মুজিবুল ইসলাম। জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি জসিম উদ্দীন।


কর্মশালায় দ্বিতীয় পর্বে আলোচনায় অংশ নেন, প্রথম আলোর কক্সবাজার অফিস প্রধান আব্দুল কুদ্দুস রানা। এরপর প্রশিক্ষনার্থীদের উদ্যেশ্যে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক অরূপ বড়–য়া অপু।


প্রশিক্ষণ সমন্বয়ক তৌফিকুল ইসলাম লিপুর পরিচালনায় কর্মশালায় কক্সবাজারের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ পড়–য়া ২০জন নারীসহ ৪৫ জন প্রশিক্ষণার্থী অংশগ্রহন করছে।

নদী পর্যটন উন্নয়নে সমস্যা ও সম্ভাবনা শীর্ষক সেমিনার

বাংলাদেশের নদী পর্যটনকে উৎসাহিত করতে আগামী ৩রা জানুয়ারিতে দ্বিতীয় বারের মত রিভার ট্যুরিজম ফেস্টের আয়োজন করতে যাচ্ছে। এ ব্যাপারে দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে সেমিনার ও র্যালি করার পরিকল্পনা করা হয়।

 
এ উপলক্ষে বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় নদী পর্যটন উন্নয়নে সমস্যা ও সম্ভাবনা শীর্ষক ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভারসিটিতে সেমিনার অনুষ্ঠিত করা হয়। 
ফেস্টিভ এন্ড কালচারাল ট্যুরিজম কনসোর্টিয়াম (এফসিটিসি) ও ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভারসিটির যৌথ আয়োজনে বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন, বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড, বাংলাদেশ ট্যুরিস্ট পুলিশ ও ঢাকা নদীবন্দর কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত হয়। 


উক্ত সেমিনারে প্রধান অতিথির হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভারসিটির ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. ইউসুফ মাহবুবুল ইসলাম। 
এতে সভাপতিত্ব করেন ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্টের হেড অফ ডিপার্টমেন্ট মাহবুব পারভেজ।


এ ছাড়াও বিশেষ অতিথি হিসাবে বিআইডাব্লিউটিএ যুগ্ম-পরিচালক একেএম আরিফ উদ্দিন, বাংলাদেশ ট্যুরিস্ট পুলিশের পুলিশ সুপার (প্ল্যানিং এন্ড অপারেশন) ড. আশরাফুর রহমান, ফেকাল্টি অফ বিজনেস এন্টারপ্রেনরশীপের ড. এম ডি মাসুম ইকবাল উপস্থিত ছিলেন।


অনুষ্ঠানে প্রধান প্রবন্ধ উপস্থাপক ছিলেন বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন জনসংযোগ বিভাগের প্রধান জিয়াউল হক হাওলাদার।


এতে আলোচক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের সদস্য খবির উদ্দিন আহমেদ, ট্যুর অপারেটর’স এ্যাসোসিয়েশন অফ বাংলাদেশ (টোয়াব) সভাপতি মোঃ রাফিউজ্জামান, সিনিয়র সহ-সভাপতি শিবলুল আজম কোরাশী, পর্যটন বিচিত্রা সম্পাদক মহিউদ্দিন হেলাল, ট্রাভেল রাইটার্স এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আশরাফুজ্জামান উজ্জ্বল, এভিয়েশন এন্ড ট্যুরিজম জার্নালিস্ট ফোরাম অফ বাংলাদেশের সভাপতি নাদিরা কিরণ, স্বাগত বক্তব্য রাখেন ফেস্টিভ এন্ড কালচারাল ট্যুরিজম কন্সোর্টিয়ামের পরিচালক ও বগুড়া ট্যুরিস্ট ক্লাব’র সভাপতি শহিদুল ইসলাম সাগর, শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন এফসিটিসির পরিচালক কিশোর রায়হান।


অতিথিদের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন এফসিটিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাসুদুল হাসান জায়েদী ও পরিচালক জাহিদুর রহমান শাওন। 


ভ্রমণ ও পর্যটন শিল্পের সঙ্গে সম্পৃক্ত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা, ট্যুর এজেন্সি, ট্যুর গাইড, ট্রাভেল গ্রুপের অ্যাডমিন, মডারেটর, ট্রাভেল রাইটার, ট্যুরিজম স্টুডেন্ট এবং পর্যটন সাংবাদিক সহ সকল ধরনের পর্যটন প্রেমীরা এই আয়োজনে অংশগ্রহণ করেন।

জলবায়ু অর্থায়নে দৃশ্যমান অগ্রগতি ও স্বচ্ছতা নিশ্চিতের দাবিতে ঝালকাঠিতে মানববন্ধন

প্যারিস চুক্তি বাস্তবায়নে প্রতিশ্রæত জলবায়ু অর্থায়নে দৃশ্যমান অগ্রগতি ও স্বচ্ছতা নিশ্চিতসহ ১১ দফা দাবিতে ঝালকাঠিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে।


আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় ঝালকাঠি প্রেস ক্লাবের সামনের সড়কে ঘণ্টাব্যাপী এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, সাংবাদিক, সমাজকর্মী ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন শ্রেণি- পেশার মানুষ অংশ নেয়। টিআইবির সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) মানববন্ধনের আয়োজন করে।


মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন প্রবীণ সাংবাদিক চিত্তরঞ্জন দত্ত, সনাক সদস্য নজরুল ইসলাম তালুকদার, টিআইবির প্রগ্রাম ম্যানেজার গাজী গোলাম মোহাম্মদ, সনাক সদস্য শামসুল আলম বেলাল, স্বজন সদস্য সৈয়দ আবুল কালাম আজাদ, টিআইবির এরিয়া ম্যানেজার মো. রোকনুজ্জামান, ইয়েস সদস্য রুহুল আমিন ও সাথি রানী শর্মা।


মানববন্ধনে বক্তারা জয়বায়ুর পরিবর্তনের প্রভাবে বিপন্ন মানুষের জীবন ও সম্পদ রক্ষায় সামাজিক সুরক্ষা বেষ্টনী গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

রাজাপুরের সাতুরিয়া ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আ’লীগের নতুন কমিটির পরিচিত সভা অনুষ্ঠিত

ঝালকাঠির রাজাপুরের সাতুরিয়া ইউনিয়ন ও ৯টি ওয়ার্ড আ’লীগের নতুন কমিটির পরিচিত সভা বৃহস্পতিবার অর্ধদিনব্যাপি লেবুবুনিয়া বাজারে অনুষ্ঠিত হয়েছে।


সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা আ’লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিলন মাহমুদ বাচ্চু।


সাতুরিয়া ইউনিয়ন আ’লীগের নব নির্বাচিত সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন নুরুল ইসলাম খলিফা, মজিবুর রহমা মৃধা, জুলফিক্কার আলী, আব্দুল মালেক, হুমাউন কবির, উজ্জল মৃধা, বাবু মৃধা, আব্দুল্লাহ আল হাসান বাপ্পি, রাজিব ফরাজি, মোস্তাফিজুর রহমান বাচ্চু, বাহাদুর হোসেন, নাসরিন বেগম ও লাভলী আক্তার প্রমুখ।


২৩ নভেম্বর ঝালকাঠি-১ আসনের এমপি বিএইচ হারুন সাতুরিয়া ইউনিয়ন আ’লীগের কমিটি ঘোষণা করার পর সাতুরিয়া ইউনিয়নের পূর্নাঙ্গ কমিটি ও ৯টি ওয়ার্ড আ’লীগের পরিচিত সভা অনুষ্ঠিত হয়।

কুমিল্লায় ফেনসিডিল ও স্কার্প সিরাপ নিয়ে ২ নারী সহ ৩ মাদক কারবারী আটক

কু‌মিল্লার কোতয়ালী ম‌ডেল থানাধীন ছত্র‌খিল ফাঁড়ি পু‌লিশ অ‌ভিযা‌ন চা‌লি‌য়ে চাঁনপুর ব্রী‌জ তালতলা এলাকা থে‌কে ২০৫ বোতল স্কার্প সিরাপ ও ১৫ বোতল ফেন‌সি‌ডিল বোতল নিয়ে ২ নারীসহ ৩ মাদক কারবারীকে গ্রেফতার ক‌রা হয়েছে। বুধবার রাতে তাদের আটক করা হয়।


ছত্র‌খিল পু‌লিশ ফাঁড়ির এসআই তপন বকসী জানান, গোপন সংবা‌দের ভিত্তিতে ফাঁড়ির একদল পুলিশ সদর উপ‌জেলার চানপুর ব্রী‌জের উত্তর পা‌ড়ে ব্যাটা‌রি চা‌লিত এক‌টি অ‌টো‌রিক্সা আটক করে ।


এ সময় যাত্রী বে‌শে থাকা তিনজন‌কে তল্লাশী ক‌রে পাচ‌টি বাজা‌রের ব্যা‌গের ভিতর থে‌কে ভারতীয় আমদা‌নি নি‌ষিদ্ধ ২০৫ বোতল স্কার্প সিরাপ ও ১৫ বোতল ফেন‌সি‌ডিল উদ্ধার ক‌রে পু‌লিশ।


আটক আসামি রেইস‌কোর্স এলাকার শিউ‌লি তার স্বামী ম‌হিউ‌দ্দিন ও শাসনগাছার রা‌বেয়া। আসা‌মি‌দের বিরু‌দ্ধে মাদক আই‌নে মামলা রুজু ক‌রা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

ওসির দৈনিক আয় ৩০ লাখ! হয়েছেন মিউজিক ভিডিওর মডেল

২০০ ড্রেজারের মালিক তাহিরপুর থানা পুলিশের সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নন্দন কান্তি ধর! সুনামগঞ্জের জাদুকাটা নদীতে এসব ড্রেজার বসিয়ে অ’বৈধভাবে প্রতিটিতে ১৫ হাজার টাকা করে দৈনিক প্রায় ৩০ লাখ টাকা আয় করেছেন।


গত তিন বছর তাহিরপুর থানার ওসি থাকা অবস্থায় এসব টাকা অ’বৈধপথে অর্জন করেছেন তিনি। দু’র্নীতি দমন কমিশনে (ওসি) নন্দন কান্তি ধরের বি’রুদ্ধে লিখিতভাবে এমন সব অ’ভিযোগ দিয়েছেন একই উপজেলার উত্তর বন্দন এলাকার বাসিন্দা সেলিম ইকবাল।


এর আগে দুদকে ক্যাসিনোকাণ্ডে জ’ড়িত থাকার অ’ভিযোগ জমা পড়ে সুনামগঞ্জ-১ আসনের এমপি ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের বি’রুদ্ধে। গত ২২ অক্টোবরে তার বি’রুদ্ধে দু’র্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) এ অ’ভিযোগ দাখিল হয়।


এবার দুদকে অ’ভিযোগ দেয়া হলো সুনামগঞ্জ সদরের তাহিরপুর থানা পুলিশের সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নন্দন কান্তি ধরের বি’রুদ্ধে। মঙ্গলবার দুপুরে দুদকের প্রধান কার্যালয়ে ওসি নন্দন কান্তি ধরের বি’রুদ্ধে দু’র্নীতি ও চাঁদাবাজির অ’ভিযোগ দেন সেলিম ইকবাল।


দুদকে দেয়া সেই অ’ভিযোগে বলা হয়, ২০১৭ সালে তাহিরপুর উপজেলায় যোগদানের পর থেকে ওসি নন্দন কান্তি ধর বিভিন্ন ধরনের চাঁদাবাজি, মিথ্যা মা’মলা দিয়ে মানুষকে হ’য়রানি ও রাষ্ট্রীয় সম্পদ আ’ত্মসাৎ করেছেন।


এরপর থেকে বিলাসবহুল জীবনযাপন শুরু করেন। তাহিরপুর থা’নার ওসি থাকা অবস্থায়ই ‘তুমি শুধু তুমি’ মিউজিক ভিডিওর মাধ্যমে নিজেকে মডেল হিসেবে উপস্থাপন করেন ওসি নন্দন কান্তি।


একই সঙ্গে জাদুকাটা নদীতে ড্রেজার বসিয়ে অ’বৈধভাবে বালুপাথর উত্তোলন করে কোটি কোটি টাকার মালিক হয়েছেন তিনি। সেলিম ইকবাল দুদকে দেয়া অ’ভিযোগ আরও উল্লেখ করেছেন, ওসি নন্দন কান্তি ধর তাহিরপুরে নদী খনন থেকে শুরু করে বিভিন্ন মানুষের কাছ থেকে চাঁদাবাজি করে লাখ লাখ টাকার মালিক হয়েছেন।


জায়গা ভরাট করে দেয়ার নামে তাহিরপুর উপজেলার বাসিন্দা মতুর্জা আলীর কাছ থেকে পাঁচ লাখ টাকা নিলেও জায়গা ভরাট করে দেননি ওসি নন্দন।


ওসি নন্দন কান্তি ধরের তার অ’বৈধ টাকা দিয়ে ভারত ও সিলেটে বাড়ি নির্মাণ করেছেন বলেও অ’ভিযোগ করেছেন সেলিম ইকবাল। জানা গেছে, ২০১৯ সালে তাহিরপুর উপজেলা থেকে বদলি হওয়ার পর বর্তমানে সুনামগঞ্জ পুলিশ লাইন্সে কর্মরত আছেন নন্দন কান্তি ধর।


এদিকে দুদকে তার বি’রুদ্ধে দেয়া অ’ভিযোগগুলোকে মি’থ্যা ও বা’নোয়াট বলে উল্লেখ করেছেন অ’ভিযুক্ত ওসি নন্দন কান্তি ধর। একটি ড্রেজার মেশিনেরও মালিক নন বলে দাবি করেছেন তিনি।


তিনি বলেন, আমার কোনো ড্রেজার মেশিন ছিল না, এখনো নেই। এছাড়া অ’ভিযোগে উল্লেখ করা আলী মর্তুজা নামক ব্যক্তির কাছ থেকে কোনো টাকা নিইনি। আমার বি’রুদ্ধে দুদকে মিথ্যা অ’ভিযোগ দেয়া হয়েছে। দুদক অ’ভিযোগ ত’দন্ত করলে সত্যতা বেরিয়ে আসবে।


এর আগে সরকারে চলমান শুদ্ধি অ’ভিযানের মাধ্যমে দু’র্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) অনুসন্ধান তালিকায় সুনামগঞ্জ-১ আসনে সরকার দলীয় সংসদ সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের নাম আসে।


ক্ষমতার অপব্যবহার করে অ’নিয়ম-দু’র্নীতি, চাঁদাবাজি ও লু’টপাটের মাধ্যমে গত ১০ বছরে নামে-বেনামে অঢেল সম্পদ বানিয়েছেন তিনি; তার বি’রুদ্ধে দুদকে এমন অ’ভিযোগ দেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা মিজানুর রহমান সোহেল।


সেই অ’ভিযোগের ভিত্তিতে এমপি রতনের বি’রুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু করে দুদক এবং তার বিদেশ গমনে নি’ষেধাজ্ঞাও আরোপ করে। এর পর অ’ভিযোগ আসে, এমপি রতনের বি’রুদ্ধে দুদকে অ’ভিযোগ করায় মিজানুর রহমান সোহেলকে তাহিরপুর থানার ওসি ক্রসফা’য়ারের হু’মকি দেন।


সে সময় মিজানুর রহমান গণমাধ্যমকে জানান, ৩ অক্টোবর প্রথম দফা এমপির বি’রুদ্ধে দুদকে অ’ভিযোগ দেয়ার পর ৫ তারিখে তাহিরপুর থানার ওসি তার বাড়িতে পুলিশ পাঠান। এরপর থেকে নানাভাবে তাকে হু’মকি দেয়া হচ্ছে।


তিনি বলেন, ২০০৮ সালের আগে এমপি মোয়াজ্জেম হোসেনের তেমন কোনো সম্পদ ছিল না। নির্বাচনী এলাকার বিভিন্ন নদী, জলমহাল, বালু ও পাথরকোয়ারিতে চাঁদাবাজি করে হাজার কোটি টাকার সম্পদের মালিক হয়েছেন। ধরমপাশা, নেত্রকোনা, ময়মনসিংহ, সিলেট ও ঢাকায় বাড়ি রয়েছে। এসব সম্পদ তিনি দু’র্নীতির মাধ্যমে করেছেন।


তবে তাহিরপুর থানার ওসি আতিকুর রহমান তার বি’রুদ্ধে আনা অ’ভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘আমি মিজানুর রহমান নামের কাউকে চিনি না। এই নামে কারও সঙ্গে ফোনেও কথা বলিনি। এসব সত্য নয়।’

ছারছীনা দরবার শরীফের ১২৯ তম তিনদিনব্যাপী মাহফিল শুক্রবার শুরু

শতাব্দীর ঐতিহ্যবাহী ছারছীনা দরবার শরীফের ১২৯ তম তিনদিনব্যাপী মাহফিল ও বাংলাদেশ জমইয়াতে হিযবুল্লাহ সম্মেলন আগামী ১৪, ১৫ ও ১৬ অগ্রহায়ণ মোতাবেক ২৯, ৩০ নভেম্বর ও ১ ডিসেম্বর রোজ শুক্রবার শুরু হয়ে রবিবার পর্যন্ত চলবে। রবিবার বাদ জোহর আখেরী মুনাজাত অনুষ্ঠিত হবে ইনশাআল্লাহ।


উক্ত মাহফিলে হযরত পীর ছাহেব কেবলা সকল পীর ভাই, মুহিব্বীন সহ সর্বস্তরের মুসলমানদের যোগদান করার জন্য আহŸান জানিয়েছেন। তিনদিনব্যাপী মাহফিলে প্রত্যহ বাদ ফজর ও বাদ মাগরীব হযরত পীর ছাহেব কেবলা গুরুত্বপূর্ণ তালীম প্রদান করবেন। দরবার শরীফের বিশিষ্ট ওলামায়ে কেরামগণ বিভিন্ন বিষয়ের ওপর আলোচনা করবেন।


মাহফিল এন্তেজামিয়া কমিটির পক্ষে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ড. সৈয়দ মুহাঃ শরাফত আলী আমাদের সংবাদদাতাকে জানান- ইতোমধ্যে মাহফিলের সার্বিক সকল কার্যক্রম প্রায় সম্পন্ন করা হয়েছে। এখন শেষ পর্যায়ের প্রস্তুতি চলছে। মাদ্রাসার পক্ষ থেকে নিরাপত্তা, সেবা, হারানো বিভাগ সহ বিভিন্ন গ্রæপ আগত মেহমানদের সেবায় নিয়োজিত থাকবে। এছাড়াও সরকারের পক্ষ থেকেও নিরাপত্তার কাজে র‌্যাব, পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস, ডাক্তারগণ নিয়োজিত থাকবে।

ছারছীনার উদ্দেশ্যে রিজার্ভ লঞ্চ:
ছারছীনা দরবার শরীফের মাহফিল উপলক্ষে আগামী ২৮ নভেম্বর বাদ মাগরীব ঢাকা সদরঘাট মসজিদ ঘাট লঞ্চ টার্মিনাল থেকে এম. ভি মর্নিংসান-৯ রিজার্ভ লঞ্চ ছেড়ে যাবে (যোগাযোগ- ০১৭১১৫২৮৫১৯), নারায়ণগঞ্জ লঞ্চঘাট থেকে এম. ভি গাজী সালাউদ্দিন বাদ আসর ছেড়ে যাবে (যোগাযোগ- ০১৯২১৪৫৬০৬০)।

পুলিশের সামনেই আইএস’র টুপি পরে রিগ্যান!

রাজধানীর গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হা’মলার ঘটনায় বুধবার দুপুরে ৭ জনের ফাঁ’সির রায় দেয়া হয়েছে। আদালতের কক্ষে হাজির রিগ্যান নামের এক আ’সামির মাথায় ছিল মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন আইএসের লোগো সংবলিত টুপি।

এ নিয়ে এরইমধ্যেই সমালোচনা শুরু হয়েছে। রায় ঘোষণার পর এ বিষয়ে জানতে চাইলে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আবদুল্লাহ আবু সংবাদমাধ্যমকে বলেন, রিগ্যানের মাথা আইএসের টুপি এল কীভাবে- ত’দন্ত করা দরকার।

বুধবার (২৭ নভেম্বর) বেলা ১২টার কিছু পর আ’সামিদের উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন ঢাকার স’ন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রা’ইব্যুনালের বি’চারক মজিবুর রহমান।

এসময় আ’সামিরা চিৎকার-চেঁচামেচি করে রায় মানি না, মানি না বলতে থাকে। প্রথমে বড় মিজানকে প্রিজনভ্যানে তোলা হয়। এসময় তাকে বেশ হাস্যোজ্জ্বল দেখা যায় এবং আল্লাহু আকবর বলতে বলতে প্রিজনভ্যানে ওঠেন তিনি।

প্রিজনভ্যানে ওঠার পরেও আল্লাহু আকবর ধ্বনি দিয়ে এ রায় না মানার কথা বলতে থাকেন তারা। এদের একজন আসলাম হোসেন ওরফে র‌্যাশ মাথায় আইএস’র কালো পতাকা বেঁধে আল্লাহু আকবর বলে চিৎকার করতে দেখা যায়।

তিনি লিফটে ওঠার সময় আ’ইন-শৃঙ্খলা র’ক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের সামনেই আইএসের প্রতীক চিহ্নিত কালো টুপি পরেন। আ’সামি হাদিসুর রহমান সাগর প্রিজনভ্যান থেকে বলতে থাকেন, আমরা কিছু করিনি। আমাদের কেন ফাঁ’সি দেওয়া হলো?

রাশেদ বলেন, আমরা ফাঁ’সি ভয় পাই না। আমরা খেলাফত যো’দ্ধা। তারা উ’ত্তেজিত হয়ে নানা ধরনের বক্তব্য দিতে থাকেন। সরকার ও আ’ইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর বি’রুদ্ধে নানা ধরনের অ’কথ্য কথা বলতে থাকেন।

সবাই ছিলেন হাস্যোজ্জ্বল। ফাঁ’সির আদেশ শোনার পরও কারও মধ্যে কোনোরকম ভী’তি লক্ষ্য করা যায়নি। মৃ’ত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আ’সামিদের এমন আস্ফালনে আদালত প্রাঙ্গণে অনেকেই বেশ অবাক হন।

তাদের এই চিৎকার চেঁচামেচির মধ্যেই আ’সামিদের বহনকারী প্রিজনভ্যান আদালত চত্বর ছেড়ে যায়। মৃ’ত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আ’সা‌মিরা হ‌লেন- জাহাঙ্গীর হোসেন ওরফে রাজীব গান্ধী, আসলাম হোসেন ওরফে র‌্যাশ, আব্দুস সবুর খান, রাকিবুল হাসান রিগ্যান, হাদিসুর রহমান, শরিফুল ইসলাম ওরফে খালেদ ও মামুনুর রশিদ। খালাস পেয়েছেন মিজানুর রহমান ওরফে বড় মিজান।

রায়ে সরকার সন্তুষ্ট বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। একইসঙ্গে কয়েকজন ‘জঙ্গি’র আইএসের টুপি পরে এজলাসে ঢোকার বিষয়টির ত’দন্ত হবে বলেও জানান মন্ত্রী।

বুধবার বহুল আলোচিত এই মা’মলার রায় ঘোষণা পর সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন আনিসুল হক। ২০১৬ সালের ১ জুলাই রাতে গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্টুরেন্টে হা’মলা চালিয়ে বিদেশি নাগরিকসহ ২০ জনকে হ’ত্যা করে নি’ষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন নব্য জেএমবির (আ’ত্মঘাতী) সদস্যরা। তাদের গু’লিতে দুই পুলিশ কর্মকর্তা নি’হত হন। পরে ক’মান্ডো অ’ভিযানে নি’হত হন পাঁচ জঙ্গি।

বাহারছড়া যুব কল্যান সমিতির বিশেষ সাধারণ সভা ৬ ডিসেম্বর

বাহারছড়া যুব কল্যান সমিতির বিশেষ সাধারণ সভা আগামী ৬ই ডিসেম্বর শুক্রবার রাত ৮টায় বাহারছড়া মুক্তিযোদ্ধা সরণীতে অবস্থিত সমিতির নিজস্ব ভবনে আহবান করা হয়েছে।

উক্ত সভায় সমিতির সম্মানিত সকল সদস্যকে যথাসময়ে উপস্থিত থাকার জন্য সমিতির পক্ষ থেকে আবদুর রহিম বিশেষভাবে অনুরোধ জানিয়েছেন।