রাষ্ট্রদ্রোহের মামলায় খালেদার সময় আবেদন মঞ্জুর করেছে আদালত

রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে করা মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সময়ের আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত। আগামী ১০ এপ্রিল এ মামলায় তাকে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার ঢাকার মহানগর হাকিম মোহাম্মদ জাকির হোসেন টিপু এ আদেশ দেন।

 

এর আগে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা তার পক্ষে শারীরিক অসুস্থতার কথা উল্লেখ করে সময়ের আবেদন করেন। অপরদিকে মামলার বাদী মমতাজ উদ্দিন মেহেদীর আইনজীবীরা খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদন করেছেন।

 

শুনানিতে খালেদা জিয়ার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া আদালতকে বলেন, ‘এ মামলায় আদালতের সমন পেয়ে খালেদা জিয়ার পক্ষে আমরা হাজির হয়েছি। শারীরিক অসুস্থতার কারণে তিনি আজ আদালতে আসতে পারেননি। ধার্য করা পরবর্তী তারিখে অবশ্যই তিনি আদালতে আসবেন।’

 

মামলার বাদী আইনজীবী মমতাজ উদ্দিন মেহেদী আদালতকে বলেন, ‘আমরা খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির একটি আবেদন করেছি।’

 

বেলা ১১টা পাঁচ মিনিটে শুরু হওয়া শুনানি শেষে বিচারক বলেন, মামলার পরবর্তী তারিখে আসামিকে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বাদীর আবেদনটি নথির সঙ্গে সংযুক্ত থাকবে।

 

মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা নিয়ে মন্তব্যের কারণে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে এক আইনজীবীর করা রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা আমলে নিয়ে গত ২৫ জানুয়ারি সমন জারি করেন ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত। বৃহস্পতিবার তাকে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।